বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সাময়িক বরখাস্ত হওয়া কর্মকর্তারা হলেন ব্যাংকের উপব্যবস্থাপনা পরিচালক (ডিএমডি) মো. কামাল উদ্দীন ও সফিউদ্দীন আহমেদ, ঋণ প্রশাসন বিভাগের প্রধান (ইভিপি) সালাউদ্দিন আহমেদ, হেড অব ব্যাংকিং অপারেশন (ইভিপি) এস এম ইকবাল মেহেদি, আন্তর্জাতিক বিভাগের প্রধান (ভিপি) এ এন এম মোয়াজ আহমেদ, খুলনা শাখার প্রধান এন এম আবুল কালাম সিদ্দিক, খুলনা চোকনগর শাখার প্রধান মো. মনজুরুল আলম, ফকিরহাট শাখার প্রধান এস এম রবিউল আলম, ফলটিটা শাখার প্রধান মো. নজরুল ইসলাম, বৈদেশিক মুদ্রা শাখার এস কে আবুল ফারাহ ও কাটাখালী শাখার ব্যবস্থাপক অরূপ কুমার সাহা।

একসঙ্গে এত কর্মকর্তার বরখাস্তের বিষয়ে জানতে ব্যাংকটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোসলেহ উদ্দীন আহমেদকে ফোন করা হলেও এ বিষয়ে তিনি কোনো মন্তব্য করতে অপরাগতা প্রকাশ করেন।

গত ২৬ সেপ্টেম্বর ব্যাংকটির নতুন চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব নেন থারমেক্স গ্রুপের চেয়ারম্যান আবদুল কাদির মোল্লা। প্রতিষ্ঠার পর থেকে এসবিএসি ব্যাংকের টানা ৯ বছর চেয়ারম্যান ছিলেন লকপুর গ্রুপের চেয়ারম্যান এস এম আমজাদ হোসেন। আগের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ব্যাংকটিতে ঋণ কেলেঙ্কারির অভিযোগ রয়েছে। খুলনার বিভিন্ন শাখার মাধ্যমে এসব ঋণ কেলেঙ্কারির ঘটনা ঘটে।

তবে বরখাস্তের ঘটনার বিষয়ে এখনো অবহিত না ব্যাংকটির সব পরিচালক। জানতে চাইলে এসবিএসি ব্যাংকের ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা কমিটির চেয়ারম্যান এম মোয়াজ্জেম হোসেন প্রথম আলোকে বলেন, এ নিয়ে বাইরে থেকে আলোচনা শুনেছেন। তবে এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে তাঁকে বিষয়টি জানানো হয়নি।

ব্যাংক থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন