default-image

প্রথম আলোর তিন প্রতিবেদকসহ বিভিন্ন দৈনিক সংবাদপত্র ও টেলিভিশনের ১৫ জন প্রতিবেদক ইআরএফ বেস্ট রিপোর্টিং অ্যাওয়ার্ড ২০২০ পুরস্কার পেয়েছেন।

প্রথম আলো থেকে পুরস্কার পেয়েছেন জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জাহাঙ্গীর শাহ, রাজীব আহমেদ ও প্রতিবেদক সানাউল্লাহ সাকিব।

অর্থনৈতিক প্রতিবেদকদের সংগঠন ইকোনমিক রিপোর্টার্স ফোরাম (ইআরএফ) সেরা প্রতিবেদনের জন্য এই পুরস্কার দেয়। আজ রোববার এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানে বিজয়ীদের হাতে ক্রেস্ট ও সম্মাননার চেক তুলে দেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। রাজধানীর পল্টনে ইআরএফ কার্যালয়ে এ অনুষ্ঠান হয়। এ বছর প্রিন্ট ও অনলাইন মিডিয়া ক্যাটাগরিতে নয়জন এবং টেলিভিশন ক্যাটাগরিতে ছয়জন প্রতিবেদক পুরস্কার পেয়েছেন।

দ্বৈত নাগরিকত্ব আড়ালে টাকার বিষয়ে প্রতিবেদন করে জাহাঙ্গীর শাহ; ‘নদী মরছে, চামড়া ডুবছে, দায় নেয় না কেউ’ শিরোনামের প্রতিবেদনের জন্য রাজীব আহমেদ এবং ‘৩৫০০ কোটি টাকা নিয়ে চম্পট’ প্রতিবেদনের জন্য সানাউল্লাহ সাকিব পুরস্কার পান।

বিজ্ঞাপন
default-image

প্রিন্ট ও অনলাইন মিডিয়া ক্যাটাগরিতে বিভিন্ন বিষয়ে অন্য যাঁরা পুরস্কার পেয়েছেন, তাঁরা হলেন দৈনিক ইত্তেফাকের জামাল উদ্দিন, দৈনিক শেয়ার বিজের ইসমাইল আলী, দৈনিক যুগান্তরের হামিদ উজ জামান, ফিন্যান্সিয়াল এক্সপ্রেসের জসিম উদ্দিন, দি বিজনেস স্ট্যান্ডার্ডের জেবুন নেসা ও দেশ রূপান্তরের আলতাফ মাসুদ।

গত কয়েক বছরে দেশের অর্থনীতি বদলে গেছে। চোখ মেললেই তা দেখা যায়। আপনাদের লেখায় অর্থনীতির এই বদলের খবর উঠে আসা উচিত। তবে সামনের দিকে এগোনোর জন্য সঠিক সমালোচনাও হতে পারে।
বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি

টেলিভিশন ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পেয়েছেন সময় টেলিভিশনের জুবায়ের আলম, গাজী টেলিভিশনের রাজু আহমদ, যমুনা টেলিভিশনের সুশান্ত সিনহা, রিমন রহমান, আলমগীর হোসেন ও ৭১ টেলিভিশনের কাবেরী মৈত্রেয়।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, গত কয়েক বছরে দেশের অর্থনীতি বদলে গেছে। চোখ মেললেই তা দেখা যায়। আপনাদের লেখায় অর্থনীতির এই বদলের খবর উঠে আসা উচিত। তবে সামনের দিকে এগোনোর জন্য সঠিক সমালোচনাও হতে পারে।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ইআরএফের সভাপতি সাইফুল ইসলাম। বক্তব্য দেন এশিয়া ফাউন্ডেশনের কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টেটিভ কাজী ফয়সাল বিন সেরাজ, ইআরএফের সাধারণ সম্পাদক এস এম রাশিদুল ইসলাম, সিনিয়র সদস্য শামসুল হক জাহিদ, সিরাজুল ইসলাম কাদির প্রমুখ।

মন্তব্য পড়ুন 0