বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

রাজধানীর কারওয়ান বাজারে প্রথম আলো কার্যালয়ে ‘আইডিএলসি-প্রথম আলো এসএমই পুরস্কার ২০২১’–এর সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এতে নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে স্বাক্ষর করেন আইডিএলসি ফাইন্যান্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম জামাল উদ্দিন ও প্রথম আলো সম্পাদক মতিউর রহমান।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে আরও জানানো হয়, দেশের কর্মসংস্থানে এসএমই খাতের অবদান ৭৫ শতাংশ। অর্থনীতিতেও এই খাতের অবদান বেশি। এ জন্য এই খাতের উদ্যোক্তাদের স্বীকৃতি দিতে এই আয়োজন।

অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রথম আলোর যুব কার্যক্রম ও অনুষ্ঠান বিভাগের প্রধান মুনির হাসান জানান, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের মধ্যে শিক্ষা, কৃষি, স্বাস্থ্য, প্রযুক্তি, উৎপাদন শিল্প ও বিশেষায়িত ক্ষেত্র হিসেবে বছরের সেরা উদ্যোক্তা এবং একজন সফল নারী উদ্যোক্তাকে বের করে আনা হবে। সেসব দেশসেরা এসএমই উদ্যোক্তার হাতে তুলে দেওয়া হবে ‘আইডিএলসি ও প্রথম আলো সম্মাননা’।

default-image
প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই আইডিএলসি এসএমই খাতকে বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে আসছে। দেশের কর্মসংস্থান ও অর্থনীতিতে এ খাতের অবদান অনেক। তাই এসএমই উদ্যোক্তাদের স্বীকৃতি দিতেই এ উদ্যোগ। আমরা আশা করছি, এ ধরনের আয়োজন উদ্যোক্তাদের অনুপ্রেরণা হিসেবেও কাজ করবে।
এম জামাল উদ্দিন, ব্যবস্থাপনা পরিচালক, আইডিএলসি ফাইন্যান্স

অনুষ্ঠানে আইডিএলসি ফাইন্যান্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম জামাল উদ্দিন বলেন, ‘আর্থিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে আমরা ব্যবসা করি মুনাফার জন্য। কিন্তু এখন আমরা ব্যবসার পাশাপাশি মানুষের জীবনমান উন্নয়নে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছি। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই আইডিএলসি এসএমই খাতকে বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে আসছে। দেশের কর্মসংস্থান ও অর্থনীতিতে এ খাতের অবদান অনেক। তাই এসএমই উদ্যোক্তাদের স্বীকৃতি দিতেই এ উদ্যোগ। আমরা আশা করছি, এ ধরনের আয়োজন উদ্যোক্তাদের অনুপ্রেরণা হিসেবেও কাজ করবে।’

অনুষ্ঠানে প্রথম আলো সম্পাদক মতিউর রহমান বলেন, ‘সংবাদপত্র হিসেবে সংবাদ প্রকাশের পাশাপাশি আমরা সমাজকে অগ্রসর করতে নানা ধরনের কাজ করে যাচ্ছি। সমাজ ও দেশের কল্যাণ হয়, এ রকম কাজের সঙ্গে আমরা সব সময় নিজেদের সম্পৃক্ত রাখার চেষ্টা করি। এসএমই উদ্যোক্তাদের সম্মানিত করার নতুন এই উদ্যোগের ফলে উদ্যোক্তাদের সম্মানিত করতে চাই।’

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে আইডিএলসির ফাইন্যান্সের পক্ষে মার্কেটিং কমিউনিকেশন বিভাগের প্রধান বিপণন কর্মকর্তা জানে আলম রোমেল, হেড অব এসএমই মোহাম্মদ সাইফুদ্দোলা শামীম, ব্যবস্থাপক আহমদ নাজীব রহমান, সহকারী ব্যবস্থাপক মো. ফেরদৌসুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন এমবিএ বাংলাদেশের পরিচালক রাহাত সোহেল অনন্যা। প্রথম আলোর পক্ষে ছিলেন হেড অব কমার্শিয়াল মনোয়ার হোসেন খান, হেড অব ডিজিটাল বিজনেস জাবেদ সুলতান, হেড অব মার্কেটিং আজওয়াজ খান, কালচারাল ইভেন্ট অ্যান্ড স্পেশাল অ্যাফেয়ার্স কবির বকুল, প্রথম আলো ট্রাস্টের সমন্বয়ক মাহবুবা সুলতানা।

শিল্প থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন