default-image

দেশের মোটরসাইকেলের বাজারে ১১০ সিসির (ইঞ্জিনক্ষমতা) একটি নতুন মডেলের মোটরসাইকেল বাজারে আনল বাংলাদেশ হোন্ডা প্রাইভেট লিমিটেড (বিএইচএল)।
লিভো সিরিজের এই মোটরসাইকেল দেশের গ্রাহকের চাহিদার প্রতি খেয়াল রেখে হোন্ডার গবেষণা ও উন্নয়ন বিভাগের পরামর্শে মুন্সিগঞ্জে তাদের কারখানায় তৈরি হয়েছে বলে এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়, লিভোর দুটি সংস্করণ লিভো ড্রাম ১ লাখ ৩ হাজার ৯০০ টাকা ও লিভো ডিস্ক ১ লাখ ৮ হাজার ৯০০ টাকায় পাওয়া যাবে।

বিএইচএল জানিয়েছে, হোন্ডা লিভো ২০১৭ সালের জুনে বাংলাদেশের বাজারে আসার পর মাত্র ৩৭ মাসের মধ্যেই ৫০ হাজার ইউনিট বিক্রির মাইলফলক অতিক্রম করে। এরই ধারাবাহিকতায় নতুন রূপে, নতুন দামে বাংলাদেশ হোন্ডা লিভো মডেলটি বাজারে এনেছে। এতে রয়েছে স্পোর্টি লুক, ডিজিটাল অ্যানালগ মিটার, এনার্জিটিক ফ্রন্ট লুক ও কার্ভড ফুয়েল ট্যাংক। হোন্ডা ইকো টেকনোলজি বা এইচইটি সংবলিত ১১০ সিসি সক্ষমতার ইঞ্জিন ব্যবহারে প্রতি লিটার জ্বালানি তেলে ৭৪ কিলোমিটার পর্যন্ত চলাচল করা যাবে (মাইলেজ)।

বিএইচএল আরও জানায়, লিভোতে রয়েছে ডিস্ক ব্রেক এবং এইচইটি টায়ারপ্রযুক্তি, যা ব্রেকিং পারদর্শিতাকে উন্নত করে এবং চলাচলকে নিরাপদ করে। সিলড চেইন, এমএফ ব্যাটারি, টিউবলেস টায়ার এবং বায়ু শুদ্ধকরণ সুবিধাও থাকছে এতে।

বিজ্ঞাপন

বিএইচএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিমিহিকো কাতসুকি বিজ্ঞপ্তিতে বলেন, বাংলাদেশের উদীয়মান বাজারে সাশ্রয়ী মূল্যে আধুনিক মোটরসাইকেল ও উদ্ভাবনী সেবা দেওয়ার মাধ্যমে গ্রাহকের আস্থা ধরে রেখেছে হোন্ডা। এটা ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে।

হোন্ডা বাংলাদেশের বিক্রয় ও বিপণন বিভাগের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট নরেশ কুমার রতন বলেন, দেশের বাজারে ১১০ সিসি মডেলের মোটরসাইকেলের মধ্যে লিভো সেরা হয়ে ওঠার পেছনে রয়েছে আধুনিক ডিজাইন, ইঞ্জিনের সক্ষমতা এবং অত্যাধুনিক হোন্ডা ইকো টেকনোলজি প্রযুক্তি।

লাল, নীল ও ধূসর—তিন রঙের নতুন মডেলটি দেশজুড়ে হোন্ডার সব পরিবেশকের শোরুমে পাওয়া যাচ্ছে লিভো।

শিল্প থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন