default-image

দেশেই এখন তৈরি হচ্ছে বিশ্বখ্যাত ব্র্যান্ড স্যামসাংয়ের টেলিভিশন। নরসিংদীর শিবপুর উপজেলায় ফেয়ার ইলেকট্রনিকসের কারখানায় এই টিভি তৈরি হচ্ছে। গতকাল শনিবার ফেয়ারের কারখানায় নবনির্মিত স্যামসাং টিভি উৎপাদন প্ল্যান্টের উদ্বোধন করা হয়। উদ্বোধন করেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম।

ফেয়ার ইলেকট্রনিকস বাংলাদেশে স্যামসাংয়ের মুঠোফোন, টিভি, ফ্রিজ, এয়ারকন্ডিশনার ও মাইক্রোওয়েব ওভেনের প্রস্তুতকারক ও বিপণনকারী প্রতিষ্ঠান। তাদের কারখানায় স্যামসাং ফ্রিজ ও মুঠোফোনের পাশাপাশি এখন থেকে উৎপাদিত হবে স্যামসাং টিভি। বছরে তিন লাখ স্যামসাং টিভি উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।  কারখানাটিতে ৩২ থেকে ৮৫ ইঞ্চি টেলিভিশন উৎপাদিত হবে। ৩২ হাজার বর্গফুট আয়তনের প্ল্যান্টটিতে কাজ করছেন ১০০ জন কর্মী।

বিজ্ঞাপন
স্যামসাং ইলেকট্রনিকসের কারিগরি সহায়তায় নির্মাণ করা হয়েছে ফেয়ার ইলেকট্রনিকসের কারখানাটি। প্রায় ৩২ একর জমির ওপর স্থাপিত এই কারখানায় ফেয়ার গ্রুপ বিনিয়োগ করেছে প্রায় এক হাজার কোটি টাকা।

উদ্বোধনের আগে কারখানাটির বিভিন্ন কার্যক্রমের ভিডিও চিত্র প্রদর্শন করা হয়। পরে এনবিআর চেয়ারম্যান টিভি উৎপাদনের নতুন প্ল্যান্ট ঘুরে দেখেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন নরসিংদীর জেলা প্রশাসক সৈয়দা ফারহানা কাউনাইন, স্যামসাং ইলেকট্রনিকস বাংলাদেশের জেনারেল ম্যানেজার বোমিন কিম, ফেয়ার গ্রুপের চেয়ারম্যান রুহুল আলম আল মাহবুব প্রমুখ।

ফেয়ার গ্রুপের চেয়ারম্যান রুহুল আলম আল মাহবুব জানান, তাঁদের কারখানায় উৎপাদিত স্যামসাং টিভি ডিজিটাল ক্লাসরুমসহ দেশের ডিজিটালাইজেশনে ভূমিকা রাখবে। ভবিষ্যতে রপ্তানির মাধ্যমে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনেরও পরিকল্পনা রয়েছে তাঁদের।

ফেয়ার গ্রুপের কর্মকর্তারা জানান, স্যামসাং ইলেকট্রনিকসের কারিগরি সহায়তায় নির্মাণ করা হয়েছে ফেয়ার ইলেকট্রনিকসের কারখানাটি। প্রায় ৩২ একর জমির ওপর স্থাপিত এই কারখানায় ফেয়ার গ্রুপ বিনিয়োগ করেছে প্রায় এক হাজার কোটি টাকা।

কারখানাটিতে এ পর্যন্ত ১ হাজার ৬০০ জনের কর্মসংস্থান হয়েছে। তাঁদের মধ্যে ১ হাজার ২০০ জন কাজ করেন মুঠোফোন প্ল্যান্টে আর ৪০০ জন কাজ করেন টিভি, ফ্রিজ ও এয়ারকন্ডিশনার প্ল্যান্টে। কর্মীদের একটি অংশকে কোরিয়া থেকে প্রশিক্ষণ দিয়ে আনা হয়েছে। আবার কোরিয়া থেকে স্যামসাংয়ের কর্মীরা এসেও বাংলাদেশি শ্রমিকদের প্রশিক্ষণ দিয়েছেন।

এনবিআর চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম বলেন, ‘ফেয়ারের কারখানায় অত্যাধুনিক ৮৫ ইঞ্চি কিউএলইডি টিভিসহ সব স্যামসাং স্মার্ট টিভি উৎপাদিত হচ্ছে, যা হালকা প্রকৌশল শিল্পের বিকাশে অনবদ্য অবদান রাখবে। তিনি বলেন, স্যামসাং, ফেয়ার ইলেকট্রনিকসসহ প্রযুক্তিশিল্পের সব বিনিয়োগকারীর জন্য আমাদের তরফ থেকে নীতিসহায়তা দেওয়া অব্যাহত থাকবে। আশা করি, প্রতিষ্ঠানটি ভবিষ্যতে দেশের রপ্তানিতেও উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখবে।’

বিজ্ঞাপন
শিল্প থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন