আবেদনের যোগ্যতা

ইঞ্জিনিয়ারিং ও ইলেকট্রিক্যাল শাখায় আবেদনের জন্য স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে নেভাল আর্কিটেকচার/ মেকানিক্যাল/ ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিকস বিষয়ে বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং পাস হতে হবে। প্রার্থীকে এসএসসি ও এইচএসসি উভয় পরীক্ষায় ন্যূনতম জিপিএ-৪.৫০ এবং বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে সিজিপিএ-৩.০০ (৪ স্কেলে) প্রাপ্ত হতে হবে। প্রার্থীকে অবিবাহিত হতে হবে। আবেদনকারীর বয়স ২০২৩ সালের ১ জুলাই অনূর্ধ্ব ২৮ বছর হতে হবে। এ শাখায় চূড়ান্ত মনোনয়ন শেষে প্রার্থীকে কমিশন্ড অফিসার হিসেবে ‘অ্যাক্টিং সাব লেফটেন্যান্ট’ পদে স্বল্পমেয়াদি বা স্থায়ী কমিশন দেওয়া হবে।

সাপ্লাই শাখায় আবেদন করতে স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাণিজ্য/ পরিসংখ্যান/ অর্থনীতি বিষয়ে সম্মান বা বিবিএ ডিগ্রি থাকতে হবে। প্রার্থীকে এসএসসি ও এইচএসসি উভয় পরীক্ষায় বিজ্ঞান বিভাগে ন্যূনতম জিপিএ-৪.৫০ এবং স্নাতক পরীক্ষায় সিজিপিএ-৩.০০ (৪ স্কেলে) প্রাপ্ত হতে হবে। প্রার্থীকে অবিবাহিত হতে হবে। প্রার্থীর বয়স ২০২৩ সালের ১ জুলাই অনূর্ধ্ব ২৮ বছর হতে হবে। এ শাখায় চূড়ান্ত মনোনয়ন শেষে কমিশন্ড অফিসার হিসেবে ‘অ্যাক্টিং সাব লেফটেন্যান্ট’ পদে স্বল্পমেয়াদি কমিশনে পাঁচ বছরের জন্য কমিশন দেওয়া হবে। পরবর্তীকালে অফিসারের আবেদন ও কর্তৃপক্ষের বিবেচনায় বিধি অনুযায়ী চাকরি বর্ধিত বা স্থায়ী নিয়োগ দেওয়া হবে।

শিক্ষা শাখায় আবেদনের জন্য স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাংলা, ইংরেজি, পদার্থ, গণিত, রসায়ন, মনোবিজ্ঞান ও আইন বিষয়ে স্নাতক ডিগ্রি থাকতে হবে। প্রার্থীকে এসএসসি ও এইচএসসি উভয় পরীক্ষায় ন্যূনতম জিপিএ-৪.০০ এবং স্নাতক পরীক্ষায় ন্যূনতম সিজিপিএ-৩.০০ (৪ স্কেলে) প্রাপ্ত হতে হবে। বিবাহিত/ অবিবাহিত প্রার্থী গ্রহণযোগ্য। আইন বিষয়ের প্রার্থীদের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের অ্যাডভোকেটশিপ সনদসহ আইন পেশায় বাস্তব অভিজ্ঞতাসম্পন্ন প্রার্থীদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। আবেদনকারীর বয়স ২০২৩ সালের ১ জুলাই অনূর্ধ্ব ৩০ বছর হতে হবে। ব্যারিস্টার/ আইন বিষয়ে পিএইচডি ডিগ্রিধারীদের ক্ষেত্রে বয়সসীমা শিথিলযোগ্য। এ শাখায় চূড়ান্ত মনোনয়ন শেষে প্রার্থীকে কমিশন্ড অফিসার হিসেবে ‘অ্যাক্টিং ইনস্ট্রাক্টর সাব লেফটেন্যান্ট’ পদে স্বল্পমেয়াদি/ স্থায়ী কমিশনে পাঁচ বছরের জন্য কমিশন দেওয়া হবে। পরবর্তীকালে অফিসারের আবেদন ও কর্তৃপক্ষের বিবেচনায় বিধি অনুযায়ী চাকরি বর্ধিত বা স্থায়ী নিয়োগ দেওয়া হবে।

শিক্ষা শাখায় (ইঞ্জিনিয়ার) আবেদনের জন্য স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং, আর্কিটেকচারে স্নাতক ডিগ্রি থাকতে হবে। প্রার্থীকে এসএসসি ও এইচএসসি উভয় পরীক্ষায় ন্যূনতম জিপিএ-৪.৫০ এবং স্নাতক পরীক্ষায় ন্যূনতম সিজিপিএ-৩.০০ (৪ স্কেলে) প্রাপ্ত হতে হবে। বিবাহিত/ অবিবাহিত প্রার্থী গ্রহণযোগ্য। আবেদনকারীর বয়স ২০২৩ সালের ১ জুলাই অনূর্ধ্ব ৩০ বছর হতে হবে। এ শাখায় চূড়ান্ত মনোনয়ন শেষে প্রার্থীকে কমিশন্ড অফিসার হিসেবে ‘অ্যাক্টিং ইনস্ট্রাক্টর সাব লেফটেন্যান্ট’ পদে স্বল্পমেয়াদি/ স্থায়ী কমিশনে পাঁচ বছরের জন্য কমিশন দেওয়া হবে। পরবর্তীকালে অফিসারের আবেদন ও কর্তৃপক্ষের বিবেচনায় বিধি অনুযায়ী চাকরি বর্ধিত বা স্থায়ী নিয়োগ দেওয়া হবে।

সব শাখার জন্য শারীরিক যোগ্যতা

পুরুষের উচ্চতা ৫ ফুট ৪ ইঞ্চি, ওজন ৫০ কেজি, বুকের মাপ স্বাভাবিক ৩০ ইঞ্চি ও সম্প্রসারিত অবস্থায় ৩২ ইঞ্চি। নারীদের উচ্চতা ৫ ফুট ২ ইঞ্চি, ওজন ৪৭ কেজি, বুকের মাপ স্বাভাবিক ২৮ ইঞ্চি ও সম্প্রসারিত অবস্থায় ৩০ ইঞ্চি। উচ্চতা ও বয়স অনুসারে সশস্ত্র বাহিনীর জন্য নির্ধারিত স্কেলের অতিরিক্ত ওজন হলে অযোগ্য বিবেচিত হবেন।

বাছাই প্রক্রিয়া
প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও প্রাথমিক সাক্ষাৎকার ২০২৩ সালের ২৩ থেকে ২৬ জানুয়ারি নৌবাহিনী কলেজ ঢাকা, মিরপুর ১৪-তে অনুষ্ঠিত হবে। প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও প্রাথমিক সাক্ষাৎকারে নির্বাচিত প্রার্থীদের বুদ্ধিমত্তা (ইঞ্জিনিয়ারিং ও ইলেকট্রিক্যাল শাখা এবং শিক্ষা শাখা ইঞ্জিনিয়ারিং ব্যতীত), ইংরেজি, সাধারণ জ্ঞান ও অধ্যয়ন করা বিষয়ে লিখিত পরীক্ষা নেওয়া হবে। লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের আইএসএসবি কর্তৃক পরীক্ষা ও সাক্ষাৎকার আন্তঃবাহিনী নির্বাচন পরিষদ, ঢাকা সেনানিবাস, ঢাকায় অনুষ্ঠিত হবে। আইএসএসবি পরীক্ষা চলাকালে প্রার্থীদের চূড়ান্ত স্বাস্থ্য পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে। এরপর নৌবাহিনী সদর দপ্তরে অনুষ্ঠিতব্য সাক্ষাৎকারের মাধ্যমে প্রার্থীকে চূড়ান্ত মনোনয়ন দেওয়া হবে।

সুযোগ-সুবিধা
চূড়ান্তভাবে নিয়োগপ্রাপ্ত প্রার্থীরা সরকারনির্ধারিত অন্যান্য সুবিধাসহ সশস্ত্র বাহিনীর বেতনক্রম অনুযায়ী বেতন ও ভাতা পাবেন।

এ ছাড়া মেধাবী অফিসারদের জন্য দেশ-বিদেশে সরকারি খরচে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে উচ্চতর প্রশিক্ষণ, জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে বিদেশ ভ্রমণ ও আর্থিক সচ্ছলতা অর্জনের সুযোগ, বিভিন্ন দেশে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসগুলোয় সামরিক উপদেষ্টা/ সহকারী সামরিক উপদেষ্টা পদে চাকরির সুযোগ, নিজ সন্তানদের জন্য যোগ্যতার ভিত্তিতে ক্যাডেট কলেজ, আর্মড ফোর্সেস মেডিকেল কলেজ, মিলিটারি ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি, নৌবাহিনীর তত্ত্বাবধানে পরিচালিত স্কুল ও কলেজে অধ্যয়নের সুযোগ এবং নিরাপদ ও মনোরম পরিবেশে মানসম্পন্ন বাসস্থান প্রাপ্তি।

যেভাবে আবেদন
আগ্রহী প্রার্থীদের এ ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে ‘অ্যাপ্লাই নাউ’ অপশনে ক্লিক করে আবেদনপদ্ধতি অনুসরণ করতে হবে। আবেদনের শেষ পর্যায়ে অনলাইন ব্যাংকিং বা মোবাইল ব্যাংকিংয়ের (বিকাশ, রকেট, নগদ, ট্যাপ, ওকে ওয়ালেট, কিউক্যাশ, নেক্সাস, এমক্যাশ, অ্যামেক্স, ব্যাংক এশিয়া, এবি ব্যাংক) মাধ্যমে আবেদন ফি ৭০০ টাকা পরিশোধ করতে হবে। আবেদনপ্রক্রিয়া শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই প্রার্থীকে প্রাথমিক সাক্ষাৎকারের জন্য কল-আপ লেটার ও ফরম কমিশন–২এ ডাউনলোড ও প্রিন্ট করে পরবর্তীকালে প্রাথমিক সাক্ষাৎকারের সময় অন্যান্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ সঙ্গে আনতে হবে। অনলাইনে আবেদন করতে কোনো সমস্যা হলে ওয়েবসাইটে বুলেটিনে দেখানো নম্বরে বা ০১৭০৭৬০৯০১৭ নম্বরে সরাসরি যোগাযোগ করা যাবে।

বিস্তারিত জানতে যোগাযোগ: পারসোনেল সার্ভিসেস পরিদপ্তর, নৌবাহিনী সদর দপ্তর, বনানী, ঢাকা-১২১৩। ফোন: (০২) ৯৮৩৬১৪১-৯, বর্ধিত ২২১৬, হেল্পলাইন: ০১৭৬৯৭০২২১৫ (সকাল আটটা থেকে রাত আটটা)। ওয়েবসাইট: www.joinnavy.mil.bd