default-image

অধ্যায় ৩

প্রশ্ন: অনিরাপদ পানি থেকে নিরাপদ পানি পাওয়ার চারটি উপায় লেখো।

উত্তর: অনিরাপদ পানি থেকে নিরাপদ পানি পাওয়ার চারটি উপায় নিচে দেওয়া হলো—

১. ছাঁকন

২. থিতানো

৩. ফোটানো

৪. রাসায়নিক প্রক্রিয়ায় বিশুদ্ধকরণ।

প্রশ্ন: বৃষ্টির পর মাটিতে পানি জমা হয়। কিছুক্ষণ পর সেই পানি অদৃশ্য হয়ে যায়। ওই পানি কোথায় যায়?

উত্তর: বৃষ্টির পর মাটিতে যে পানি জমা হয় তা সূর্যের তাপে বাষ্পীভূত হয়ে জলীয় বাষ্পে পরিণত হয়। ওই জলীয় বাষ্প ওপরে উঠে ঠান্ডা ও ঘনীভূত হয়ে আবার পানিবিন্দুতে পরিণত হয়।

প্রশ্ন: পানির তিনটি অবস্থা কী কী?

উত্তর: পানির তিনটি অবস্থা হলো—কঠিন, তরল ও বায়বীয়।

প্রশ্ন: বৃষ্টি কী?

উত্তর: পুকুর, খালবিল, নদী ও সমুদ্রের পানিকে সূর্যতাপ জলীয় বাষ্পে পরিণত করে। জলীয় বাষ্পের ক্ষুদ্র পানিকণা ঘণীভূত হয়ে মেঘ সৃষ্টি করে। মেঘের পানিকণাগুলো একত্র হয়ে আরও বড় হয়ে বৃষ্টি হিসেবে মাটিতে পড়ে।

প্রশ্ন: ছাঁকন কী?

উত্তর: ছাঁকনি দিয়ে ছেঁকে পানি পরিষ্কার করার প্রক্রিয়াই হলো ছাঁকন।

প্রশ্ন: পানিচক্রের প্রবাহ কী?

উত্তর: পানি → বাষ্প → মেঘ → বৃষ্টি

প্রশ্ন: আর্সেনিক দূষণের কারণ কী?

উত্তর: আর্সেনিক একপ্রকার বিষাক্ত রাসায়নিক পদার্থ, যা কিছু কিছু এলাকার ভূগর্ভস্থ পানিতে দেখা যায়। নলকূপের পানির সঙ্গে মিশে এটি ওপরে আসে এবং এ পানি ব্যবহারের ফলে মানুষের মারাত্মক অসুখ হয়। প্রাকৃতিক কারণেই আর্সেনিক দূষণ হয়ে থাকে।

প্রশ্ন: দূষিত পানি পান করলে কী কী রোগ হতে পারে?

উত্তর: দূষিত পানি পান করলে কলেরা, আমাশয়, টাইফয়েড, ডায়রিয়া, জন্ডিস ইত্যাদি রোগ হতে পারে।

প্রশ্ন: পানি শরীরে কী কাজ করে?

উত্তর: আমরা যে খাদ্য গ্রহণ করি পানি তা ভেঙে শক্তি উত্পাদন করে। এ ছাড়া শরীরের সঠিক তাপমাত্রা বজায় রাখতে সহায়তা করে।

প্রশ্ন: মেঘ কী?

উত্তর: সূর্যতাপে ভূপৃষ্ঠের পানি জলীয় বাষ্প হয়ে ওপরে উঠতে থাকে। একসময় ওপরের ঠান্ডা বাতাসের সংস্পর্শে তা জলকণায় পরিণত হয়ে আকাশে ভাসতে থাকে, এটিকে মেঘ বলে।

প্রশ্ন: পানি দেহের কী কাজ করে?

উত্তর: আমরা যখন খাদ্য গ্রহণ করি, তখন পানি সেই খাদ্য পরিপাকে সাহায্য করে। পুষ্টি উপাদান শোষণ করে দেহের প্রতিটি অঙ্গে তা পরিবহনে সাহায্য করে। এ ছাড়া দেহের স্বাভাবিক তাপমাত্রা বজায় রাখতেও পানি সহায়তা করে থাকে।

প্রশ্ন: পানি শোধনের দুটি উপায় লেখো।

উত্তর: পানি শোধনের দুটি উপায় হলো—

১. থিতানো ও

২. ফুটানো।

প্রশ্ন: পানির দুটি উৎসের নাম লেখো।

উত্তর: পানির দুটি উৎসের নাম হলো—

১. বৃষ্টি ও

২. নদীনালা।

প্রশ্ন: পানি বিশুদ্ধকরণের দুটি রাসায়নিক পদার্থের নাম লেখো।

উত্তর: পানি বিশুদ্ধকরণের দুটি রাসায়নিক পদার্থ হলো—

১. ফিটকিরি ও

২. ব্লিচিং পাউডার।

বাকি অংশ ছাপা হবে আগামীকাল

বিজ্ঞাপন
শিক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন