এ ছাড়া গাণিতিক ও পদার্থবিষয়ক অনুষদ এবং ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন টেকনোলজিভুক্ত ‘এ’ ইউনিটে ৭৬ হাজার ৩৭৯, সমাজবিজ্ঞান অনুষদ ও আইন অনুষদভুক্ত ‘বি’ ইউনিটে ৪৮ হাজার ৩৪৭, কলা ও মানবিক অনুষদ, নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগ, চারুকলা বিভাগ এবং বঙ্গবন্ধু ও তুলনামূলক সাহিত্য সংস্কৃতি ইনস্টিটিউটভুক্ত ‘সি’ ইউনিটে ৫৩ হাজার ৪৩০ জন ভর্তি-ইচ্ছুক আবেদন করেছেন।

আবু হাসান জানান, ভর্তি পরীক্ষার আবেদনের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো তারিখের মধ্যে, অর্থাৎ আগামী ৩১ জুলাই থেকে ১১ আগস্টের মধ্যে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। তবে কোন দিন কোন ইউনিটের পরীক্ষা হবে, তা পরবর্তী বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

ভর্তি পরিচালনা কমিটি সূত্র জানায়, ভর্তি পরীক্ষার ইউনিট কমলেও ভর্তি পদ্ধতিতে পরিবর্তন আসেনি। এবারও পালা পদ্ধতিতেই পরীক্ষা নেওয়া হবে। ৫৫ মিনিটের ভর্তি পরীক্ষায় ভর্তি-ইচ্ছুকদের ৮০টি প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে। বহুনির্বাচনী এ পরীক্ষায় প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য দশমিক ২০ নম্বর কাটা যাবে। এই ৮০ নম্বরের সঙ্গে ভর্তি-ইচ্ছুকদের এসএসসি ও এইচএসসির জিপিএর ভিত্তিতে ২০ নম্বর যোগ হয়ে মেধাতালিকা প্রস্তুত করা হবে।

ভর্তি পরীক্ষাসংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তিবিষয়ক ওয়েবসাইটে https://juniv-admission.org/ ।

ভর্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন