গত মঙ্গলবার রাতে কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী উপজেলার নেহাল উদ্দিন পাইলট বালিকা উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্র থেকে চলমান এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনা ঘটে। বিষয়টি জানাজানি হলে শিক্ষা বোর্ড কর্তৃপক্ষ গতকাল বুধবার সকালে ওই বিষয়ের পরীক্ষা স্থগিত ঘোষণা করে।

দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের উপপরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মানিক হোসেন বলেন, গতকাল থেকে প্রশ্নপত্র ছাপানোর কাজ শুরু হয়েছে। মোট ৭২ সেট নতুন প্রশ্ন তৈরি হবে। ছাপানো শেষ হলে বোর্ডের প্রতিনিধি যাচাই–বাছাই করবেন। ২৬ সেপ্টেম্বর বিজি প্রেস কর্তৃপক্ষ জেলা প্রশাসকের প্রতিনিধির কাছে প্রশ্নপত্র হস্তান্তর করবে। পরে পর্যায়ক্রমে জেলা প্রশাসন কার্যালয় থেকে নিয়ম অনুযায়ী প্রশ্নপত্র সংশ্লিষ্ট উপজেলায় যাবে। তিনি আরও বলেন, পুরোনো প্রশ্নপত্রগুলো বাতিলের প্রক্রিয়া চলমান। নতুন ৭২ সেট প্রশ্নপত্র তৈরিতে বোর্ডের ৩০ লক্ষাধিক টাকা বাড়তি খরচ হবে।

এদিকে প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনায় অভিযুক্ত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে হওয়া মামলার পাশাপাশি দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ড তিন সদস্যবিশিষ্ট কমিটি গঠন করেছেন। কমিটির সদস্যরা হলেন কলেজ পরিদর্শক ফারাজ উদ্দিন তালুকদার, হারুন অর রশিদ মণ্ডল এবং রংপুর অঞ্চলের শিক্ষা উপপরিচালক আক্তারুজ্জামান।

উপপরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মানিক হোসেন বলেন, তদন্ত কমিটি তদন্ত পরিচালনার কাজে আজ সকালেই ঘটনাস্থলের উদ্দেশে রওনা করেছে।

পরীক্ষা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন