default-image

১১ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হচ্ছে বিশ্বের বৃহত্তম ও বহুপ্রতীক্ষিত অনলাইন মেলা ইলেভেন ইলেভেন। আলিবাবা গ্রুপের অঙ্গসংগঠন ও দেশের বৃহত্তম অনলাইন মার্কেটপ্লেস দারাজ বাংলাদেশ (daraz.com.bd) তৃতীয়বারের মতো আয়োজন করল দারাজ ১১.১১ সেল নামক এই ক্যাম্পেইন। ইভেন্টটির কো-স্পনসর হিসেবে রয়েছে অ্যাপেক্স, ডাবর হানি, ডেটল, এসকোয়্যার ইলেকট্রনিকস, রিয়েলমি ও স্টুডিওএক্স। ব্র্যান্ড পার্টনার হিসেবে রয়েছে প্যারাস্যুট ন্যাচারাল, ভিট, টিপি লিংক, ইমামী, পন্ডস, মটোরোলা, ফোকালিউর ও ট্রান্সসেন্ড।

ইভেন্ট পার্টনার হিসেবে রয়েছে বার্গার কিং, কথা অ্যাপ, শেয়ার ট্রিপ, ঢাকা রিজেন্সি হোটেল অ্যান্ড রিসোর্ট ও লিংক থ্রি। মিডিয়া পার্টনার হিসেবে রয়েছে সময় টিভি, কালের কণ্ঠ, বিডি২৪লাইভ এবং রেডিও টুডে। পুরো বিশ্বের পাশাপাশি বৃহত্তম এই শপিং ফেস্টিভ্যালটি আয়োজিত হচ্ছে দক্ষিণ এশিয়ার পাঁচটি দারাজ কান্ট্রি বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, নেপাল, মিয়ানমার ও পাকিস্তানে।  

বিজ্ঞাপন

ইলেভেন ইলেভেন ক্যাম্পেইন থেকে আরও বেশি ডিসকাউন্ট পাবেন যেভাবে—

সেরা ডিল

দারাজ ১১.১১ সেল ক্যাম্পেইনের উল্লেখযোগ্য ডিলগুলোর মধ্যে রয়েছে রিয়েলমি ৬ (৮ জিবি র‍্যাম/১২৮ জিবি রম) মাত্র ২০,২৯০ টাকায়, সনি ফুল এইচডি (৪০৴ ৴) ইন্টারনেট টিভি মাত্র ৩২,৩৪৪ টাকায়, এইচপি কোর আই সেভেন ল্যাপটপ (১৫.৬৴ ৴) মাত্র ৬৭,৪৪০ টাকায়, হ্যাভেলস ইন্সটানিও ১ লিটার ওয়াটার হিটার মাত্র ৫,৬৫০ টাকায় এবং ৯,৮০০ টাকায় ফসিল লেদার মেন’স ওয়াচ।

পেমেন্ট পার্টনারদের মাধ্যমে ডিসকাউন্ট

১১.১১ ক্যাম্পেইন উপলক্ষে দারাজ (daraz.com.bd) অফার করছে পেমেন্ট পার্টনারদের মাধ্যমে ডিসকাউন্ট এবং ক্যাশব্যাক অফার, যার মাধ্যমে আরও ১৫ শতাংশ পর্যন্ত অতিরিক্ত ছাড় পাওয়া যাবে। পেমেন্ট পার্টনারদের মধ্যে রয়েছে ব্র্যাক ব্যাংক, সিটি ব্যাংক, ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেড, মার্কেন্টাইল ব্যাংক, স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক ও বিকাশ।

ভাউচার

অনলাইন উৎসবটিতে দারাজের (daraz.com.bd) পক্ষ থেকে গ্রাহকদের জন্য মূল্যছাড় ছাড়াও থাকছে আই লাভ ভাউচার, হ্যাপি আওয়ার ভাউচার, ডাবল টাকা ভাউচার, ব্র্যান্ড ডাবল টাকা ভাউচার এবং শেক শেক ভাউচার। এই বিশেষ ভাউচারগুলো ব্যবহার করলে বিশাল ডিসকাউন্টের পণ্যের ওপর পাওয়া যাবে আরও বেশি ছাড়। ক্রেতারা নিজের সুবিধামতো ভাউচার ব্যবহার করে দারাজ অ্যাপ থেকে কিনে নিতে পারবেন পছন্দের পণ্য।

প্রতি ঘণ্টার আকর্ষণ

ক্রেতাদের শপিং অভিজ্ঞতাকে আরও মজাদার করতে দারাজ অ্যাপে দিনব্যাপী থাকছে নানা আয়োজন। রাত ১২টা থেকে ১টা পর্যন্ত থাকছে শাওমি পোকো এক্স৩ এনএফসি মোবাইল (Poco X3 NFC) ও রিয়েলমি সি১৫ মোবাইল (realme C15: 4+64 GB) এক্সক্লুসিভ লঞ্চ, বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত থাকছে ‘গেস অ্যান্ড গেট ইট ফ্রি’, দুপুর ১টায় থাকছে শেক শেক—ব্র্যান্ড ডাবল টাকা ভাউচার, বেলা দুইটায় থাকছে ব্র্যান্ড মিস্ট্রি বক্স, বেলা তিনটায় থাকছে ‘হ্যাপি আওয়ার ভাউচার’, বিকেল চারটায় থাকছে শেক শেক—যেখানে থাকছে মোটরোলা, স্যামসাং স্মার্টফোন ও স্মার্টওয়াচ জিতে নেওয়ার সুযোগ। বিকেল পাঁচটায় থাকছে ১১ টাকা মিস্ট্রি বক্স; যেখানে থাকবে ইলেকট্রনিকস, ফ্যাশন ও হেলথ অ্যান্ড বিউটি প্রোডাক্ট। সন্ধ্যা ছয়টায় থাকছে ফ্ল্যাশ সেল, সন্ধ্যা সাতটায় আছে ‘প্রাইস স্ল্যাশ’, রাত ৯টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত থাকছে মোটোরোলা জি৮ পাওয়ার লাইট মোবাইল (Motorola g8 Power Lite) এক্সক্লুসিভ লঞ্চ। এই অফারগুলো পাওয়া যাবে শুধু নির্ধারিত সময়ে এবং সীমিত স্টকে, যার জন্য ক্রেতাকে প্রতি ঘণ্টায় দারাজের অ্যাপটি (Daraz App) ভিজিট করতে হবে।
বিজয়ীদের নাম ঘোষণা

১০ নভেম্বর রাত সাড়ে ১১টায় দারাজের অফিশিয়াল ফেসবুক লাইভে এসে ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন করেন অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। যেখানে ‘স্পিন দ্য উইল’ গেমের মাধ্যমে গ্রাহকেরা জিতে নেন রিয়েলমি ৬আই মোবাইল (realme 6i), রিয়েলমি সি১৫ মোবাইল (realme C15), শার্প এয়ারকন্ডিশনার ইত্যাদি। উল্লেখ্য, এই জনপ্রিয় গেমটি বিশ্বের বড় কোম্পানিগুলোতেও আয়োজিত হয়ে থাকে। এই গেমে ইলেভেন ইলেভেন ক্যাম্পেইনের বিভিন্ন পার্টনার এবং স্পনসররা গ্রাকদের জন্য ফ্রি গিফট স্পনসর করে থাকেন, যার কোনো বিনিময় মূল্য নেওয়া হয় না। জামি হাসান সাকিবের কাছে ইলেভেন ইলেভেন ক্যাম্পেইনের প্রথম হোম ডেলিভারিটিও করেন সাকিব আল হাসান।

বিজ্ঞাপন
default-image

ক্যাম্পেইনের মূল আকর্ষণ ‘১ টাকা গেম’ খেলে যিনি ১ টাকায় মেভেন অটোসের টয়োটা অ্যাকুয়া গাড়ি জিতে নিয়েছেন, সেই বিজয়ীর নামও ঘোষণা করা হয় এই লাইভ অনুষ্ঠানে। বিজয়ীর নাম জাহিদুল ইসলাম। উল্লেখ্য, দারাজ বাংলাদেশ ছয় বছর যাবৎ সুনামের সঙ্গে ব্যবসা করে আসছে এবং তাদের গ্রাহদের একটি পরিপূর্ণ শপিং এক্সপেরিয়েন্স দেওয়ার পাশাপাশি ভিন্নধর্মী লাইফস্টাইল প্রদানের ক্ষেত্রেও নতুন সব পন্থা অবলম্বন করছে। এর মধ্যে সবচেয়ে অভিনব হলো ‘এক টাকা গেম’ নামের এই মজাদার গেম। ১ টাকা গেইমের বিজয় সম্পূর্ণভাবে অংশগ্রহণকারীদের দক্ষতা এবং বিচক্ষণতার ওপর নির্ভর করে। তথাপি এই গেমটি সম্পূর্ণই ‘স্কিল বেজড’। এই গেমের টার্মস অ্যান্ড কন্ডিশনে স্পষ্টভাবে উল্লেখ আছে যে প্রত্যেক অংশগ্রহণকারীকে তার পরিশোধিত ১ টাকা নির্দিষ্ট তারিখের মধ্যে রিফান্ড করে দেওয়া হবে। অতএব এই গেমে অংশগ্রহণের জন্য অংশগ্রহণকারীদের কখনই কোনো আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হয় না। বাংলাদেশের ই–কমার্স ক্ষেত্রের প্রচার, প্রসার এবং জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে শুরু থেকেই কাজ করছে দারাজ এবং এই ‘১ টাকা গেম’ মূলত অর্ডার কীভাবে করতে হয়, সেটি শেখায় ক্রেতাদেরকে।

দারাজ বাংলাদেশ লিমিটেডের (daraz.com.bd) ম্যানেজিং ডিরেক্টর সৈয়দ মোস্তাহিদল হক বলেন, দারাজ সব সময়ই তার প্রিয় গ্রাহকদের জন্য নতুন ও উন্নত ধরনের অভিজ্ঞতা প্রদানের চেষ্টা করে এবং পুরো বাংলাদেশের জন্যই এখনো ই–কমার্সের অভিজ্ঞতা এতটাই নতুন যে ক্রেতাদের প্রথমে বুঝে উঠতে একটু সময় লেগে যায়। দারাজ অ্যাপটি সব সময় এক্সপ্লোর করতে থাকুন, কারণ এটি এমন একটি প্ল্যাটফর্ম, যার মধ্যে পণ্য ক্রয় থেকে শুরু করে সব বিষয়ের প্রক্রিয়া এবং নিয়মনীতি স্পষ্টভাবে লেখা রয়েছে। আশা করছি, এবার ১১.১১–এর সাফল্যের পর আগামী বছর ক্রেতাদের জন্য আরও নতুন কিছু নিয়ে আসতে সক্ষম হব আমরা। বিজ্ঞপ্তি

মন্তব্য পড়ুন 0