default-image

বিশ্বজুড়ে ১০০টিরও বেশি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে সাইবার ডাকাতি চালিয়ে প্রায় ১০০ কোটি মার্কিন ডলারেরও বেশি হাতিয়ে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা। অনলাইন নিরাপত্তা পণ্য নির্মাতাপ্রতিষ্ঠান ক্যাসপারস্কির সাম্প্রতিক এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। খবর বিবিসির।
ক্যাসপারস্কির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০১৩ সাল থেকে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে যে সাইবার ডাকাতি শুরু হয়েছে তা এখনো সক্রিয় রয়েছে। এখন পর্যন্ত এসব ব্যাংক থেকে ১০০ কোটি মার্কিন ডলারেরও বেশি হাতিয়ে নেওয়া হয়েছে। রাশিয়া, ইউক্রেন ও চীনের একটি সাইবার ডাকাত দলের সদস্যরা এর জন্য দায়ী।
ক্যাসপারস্কি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ডাকাতির এই বিষয়টি তদন্ত করতে ইন্টারপোল ও ইউরোপোলের সঙ্গে কাজ করছে তারা।
রাশিয়া, যুক্তরাষ্ট্র, জার্মানি, চীন, ইউক্রেন ও কানাডার মতো ৩০টি দেশের আর্থিক প্রতিষ্ঠানে সাইবার আক্রমণ করে অর্থ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে।
ইন্টারপোলের ডিজিটাল ক্রাইম সেন্টারের পরিচালক সঞ্জয় ভিরমানি এ প্রসঙ্গে জানিয়েছেন, সাইবার আক্রমণের বিষয়টি একটি বিষয় মনে করিয়ে দেয়, তারা যেকোনো সিস্টেমের যেকোনো দুর্বলতা বের করে তা কাজে লাগাতে সক্ষম।
ক্যাসপারস্কি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, সাইবার ডাকাতেরা এখন নতুন পদ্ধতি ব্যবহার শুরু করেছে, যেখানে গ্রাহকের পরিবর্তে ব্যাংকের নেটওয়ার্কে আক্রমণ চালিয়ে সরাসরি অর্থ হাতিয়ে নেওয়া হয়। এই ডাকাত দলটিকে বলা হয় ‘ক্রাবানাক’। নেটওয়ার্কে ক্ষতিকর ভাইরাস ঢুকিয়ে ভিডিওর মাধ্যমে নজরদারি করার পাশাপাশি ব্যাংকের কর্মকর্তাদের স্ক্রিনের সব তথ্য তারা হাতিয়ে নিতে পারে। ব্যাংক থেকে অর্থ অ্যাকাউন্টে সরাসরি স্থানান্তর করে নেওয়া বা ক্যাশ মেশিন থেকে অর্থ বের করে নিতে পারে দুর্বৃত্তরা।
প্রতি দুই থেকে চার মাস অন্তর এই ডাকাতির ঘটনা ঘটে এবং প্রতিবারই ১০ মিলিয়ন ডলারের মতো অর্থ চুরি করা হয়। ক্যাসপারস্কির নিরাপত্তা গবেষক সের্গেই গ্লোভানভের মতে, অত্যন্ত সুচতুর ও পেশাদার সাইবার ডাকাত দলের কাজ এটি।

বিজ্ঞাপন
প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন