default-image

কেক কেটে ‘সালমান শাহ জন্মোৎসব ২০১৯’ উদ্বোধন করেছেন চলচ্চিত্রের এ সময়ের জনপ্রিয় চিত্রনায়ক শাকিব খান। এর আগে তিনি বললেন, ‘আজ সালমান শাহ নেই। কিন্তু মৃত্যুর এত বছর পরও তিনি কোটি কোটি মানুষের মনে বাস করছেন। মানুষ তাঁকে এখনো শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করছে। আমার খুব পছন্দের নায়ক তিনি। আজ তাঁর জন্মদিনের কেক কাটতে পারা আমার জন্য সৌভাগ্যের ব্যাপার।’

আজ বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর মধুমিতা প্রেক্ষাগৃহে সালমান শাহর জন্মদিন উপলক্ষে টিএম ফিল্মস নিবেদিত ‘সালমান শাহ জন্মোৎসব ২০১৯’ আয়োজন করেছে ঢুলি কমিউনিকেশনস।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্‌মেদ বলেন, ‘চলচ্চিত্র ও সংস্কৃতিবান্ধব এই সরকার বরাবরই দেশের সাংস্কৃতিক অঙ্গনের জন্য কাজ করে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে সারা দেশে ২৮টি হাইটেক পার্ক নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এগুলোর ১৩টিতে আধুনিক প্রযুক্তির সিনেপ্লেক্স যুক্ত করা হচ্ছে। ২০০-২৫০ আসনবিশিষ্ট হল হবে এগুলো। গত মাসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই কাজের অনুমতি দিয়েছেন।’

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন গানবাংলা টিভি ও টিএম ফিল্মসের চেয়ারম্যান ফারজানা মুন্নী, চিত্রপরিচালক সোহানুর রাহমান সোহান, অরুণ চৌধুরী ও ছটকু আহমেদ, চিত্রনায়িকা শবনম বুবলী, আইরিন সুলতানা ও জাহারা মিতু, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতির সভাপতি ফাল্গুনী হামিদ, কণ্ঠশিল্পী আরিফ, সাব্বির, লুইপাসহ অনেকে। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন আনজাম মাসুদ।

উৎসবের আহ্বায়ক নিপু বড়ুয়া প্রথম আলোকে বলেন, ‘সালমান শাহ জন্মোৎসব ২০১৯’ উপলক্ষে ২০ সেপ্টেম্বর থেকে মধুমিতা প্রেক্ষাগৃহে সপ্তাহজুড়ে প্রদর্শিত হবে সালমান শাহ অভিনীত জনপ্রিয় ছয়টি চলচ্চিত্র। প্রতিদিন প্রতিটি ছবির চারটি প্রদর্শনী হবে। ২০ সেপ্টেম্বর প্রদর্শিত হবে সালমান শাহ ও মৌসুমী অভিনীত ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’ ছবিটি। এরপর ২১ সেপ্টেম্বর ‘তোমাকে চাই’; ২২ সেপ্টেম্বর ‘মায়ের অধিকার’; ২৩ সেপ্টেম্বর ‘চাওয়া থেকে পাওয়া’; ২৪ সেপ্টেম্বর ‘তুমি আমার’; ২৫ সেপ্টেম্বর ‘অন্তরে অন্তরে’ এবং ২৬ সেপ্টেম্বর ‘সত্যের মৃত্যু নেই’ ছবিটি দেখানো হবে।

এই উৎসবের মাধ্যমেই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান টিএম ফিল্মসের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু হলো। প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান দেশের অন্যতম সৌন্দর্য বিশেষজ্ঞ ফারজানা মুন্নী বলেন, ‘সালমান শাহ আমাদের সর্বস্তরের মানুষের কাছে স্বপ্নের নায়ক। তাঁকে নিয়ে আয়োজিত এই উৎসবের সঙ্গে যুক্ত হতে পেরে ভালো লাগছে। আরও ভালো লাগছে আমাদের টিএম ফিল্মসের আনুষ্ঠানিক যাত্রা হচ্ছে এই ইভেন্টের মধ্য দিয়ে। আমাদের উদ্দেশ্য আগামী প্রজন্মের চলচ্চিত্র নির্মাতা, অভিনয়শিল্পী ও দর্শকদের জন্য আন্তর্জাতিক মানের প্ল্যাটফর্ম তৈরি করা।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন