বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

পাকিস্তানি বলিউড অভিনেতা আলি ফজল টুইটারে লিখেছেন, ‘উমর শরিফ সাহেবের মৃত্যু একটি বিশাল ক্ষতি। আমার ভাষা হারিয়ে ফেলেছি। তাঁর পরিবারের সবার শান্তি কামনা করি।’

উমরের মৃত্যুতে ভারতীয় কমেডিয়ান কপিল শর্মাও শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন। কপিল লিখেছেন, ‘বিদায় কিংবদন্তি, তাঁর আত্মার শান্তি কামনা করি।’

উমর শরিফের মৃত্যুর খবরে সমবেদনা জানিয়েছেন পাকিস্তানি অভিনেত্রী সাবা কামারও।

default-image

বেশ কয়েক মাস ধরেই অসুস্থ ছিলেন এই কৌতুকাভিনেতা। গুরুতর অসুস্থ হয়ে গত মাসে পাকিস্তানের আগা খান বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। এরপর তাঁকে ভালো চিকিৎসার জন্য দেশের বাইরে পাঠানো হয়।

১৪ বছর বয়সে ক্যারিয়ার শুরু করেন উমর শরিফ। মঞ্চ দিয়ে তাঁর অভিনয়ে যাত্রা শুরু। তিনি সব থেকে জনপ্রিয়তা পান গত শতকের আশির দশক থেকে নব্বই দশকের মধ্যে। তাঁর দুটি মঞ্চনাটক ‘বকরা কিস্তোঁ পার’ ও ‘বুড্ডা ঘর পে হ্যায়’ পুরো পাকিস্তানজুড়ে জনপ্রিয়তা অর্জন করে। এই দুই নাটকের অডিও ক্যাসেটও বের করা হয়। লাহোরের ঘরে ঘরে সেসব ক্যাসেট শোনা হতো। এমনকি করাচিতে মিনিবাসে এই ক্যাসেট চালানো হতো।

উমর শরিফ চলচ্চিত্র বিষয়েও পড়ালেখা করেন। লাহোরে অভিনেতা ও পরিচালক হিসেবে কাজ করেন। তাঁর অভিনীত অন্যতম ছবি ‘মি. ৪২০’। পরে তিনি তাঁর জন্মশহর করাচিতে চলে যান। সেখানে মঞ্চে কাজ করেন। টেলিভিশন চ্যানেলে টক শো পরিচালনা করতেন।

বলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন