এবারই প্রথম নয়, সন্তান প্রসঙ্গ উঠলেই মজা করেন তিনি। কিছুদিন আগেই আরেক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছিলেন, বাচ্চা বড় করতে গিয়ে তিনি ও আমাল বড় ‘ভুল’ করেছেন, যার একটি সন্তানদের ইতালিয়ান শেখানো। ‘আমরা কেউই ইতালিয়ান জানি না, অথচ ওরা আমাদের সামনে অনর্গল বলে যায়,’ বলেন ক্লুনি।

আমাল আলামুদ্দিনের সঙ্গে দেখা হওয়া প্রসঙ্গে ড্রিউ ব্যারিমোরের শোতে অভিনেতা আরও বলেন, ‘বাড়িতে কয়েকজনকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলাম। আমার এজেন্ট ফোন করে বলল, “অতিথিদের মধ্যে এমন একজন নারী আছেন, যাঁকে আমি বিয়ে করত চাইব।” বললাম, “তুমি একটা গর্দভ।”’

পরে ঘটনা কিন্তু এজেন্টের ‘চিত্রনাট্য’ অনুযায়ীই ঘটে। নিয়মিত রাতে ফোনে কথা বলতে শুরু করেন ক্লুনি ও আমাল। কিছুদিন পর অভিনেতা ঠিক করেন, আমালকে চিঠি লিখবেন। এরপর শুটিংয়ের জন্য লন্ডনে যান অভিনেতা, এক ক্ল্যাসিক্যাল গানের অনুষ্ঠানে আমালকে আমন্ত্রণ জানান।

পরে যেভাবে আমালকে বিয়ের প্রস্তাব দেন, সেটা যেন রোমান্টিক সিনেমাকেও হার মানায়। আমালকে ডিনারের আমন্ত্রণ জানান। আগে থেকেই ক্লুনি সেখানে তাঁর ফুফু প্রখ্যাত গায়িকা রোজমেরি ক্লুনির গান বাজানোর ব্যবস্থা করে রেখেছিলেন। যখনই তাঁর গাওয়া ‘হোয়াই শুডন্ট আই’ গানটি বেজে ওঠে, অমনি আমালের সামনে হাঁটু গেড়ে বসে পড়েন ক্লুনি। আংটি আগে থেকেই আনা ছিল। এরপর যা হওয়ার, তা-ই হলো।