বরুণ জানান, সানিয়ার প্রতি ক্রাশ ছিল তাঁর। একটি বিজ্ঞাপনে সুযোগ পান সানিয়াকে কাছ থেকে দেখার। সে ঘটনার স্মৃতিচারণা করেন বরুণ বলেন, ‘আমি তখন ম্যাড প্রোডাকশনের হয়ে কাজ করছিলাম। আমাদের একটি বিজ্ঞাপনচিত্রের শুটিংয়ে সানিয়া ছিল। শুটিংয়ের জন্য আমার ওপর দায়িত্ব পড়ে ৩০০ জোড়া জুতা জোগাড় করার। আমি ৩০০ জোড়া জুতা ভাড়া করে আনি। সানির প্রতি আমার ক্রাশ ছিল। সে আমাকে একটা আপেল আনতে বলে। জুতা নিয়ে ফেরার সময় ওর জন্য আপেল আনতে ভুলিনি।’

প্রিয় তারকার জন্য আপেল ঠিকই এনেছিলেন বরুণ। তবে বিপত্তিটা ঘটে এরপরই। আপেল দেখেই সানিয়ার মা রেগে উঠে বলেন, ‘কে বলেছে তোমাকে আপেল আনতে?’ বরুণের তখন ভয়ে জড়সড় অবস্থা। তাঁকে বিপদ থেকে উদ্ধার করেন সানিয়া নিজেই। এগিয়ে এসে জানান, তিনিই আপেল আনতে বলেছিলেন।

পরে বরুণ জানান, সেদিন জুতা ভাড়া করা ও সানিয়ার জন্য আপেল নিয়ে আসার জন্য তিনি পাঁচ হাজার রুপি পারিশ্রমিক পেয়েছিলেন।

বরুণদের নতুন ছবি ‘ভেড়িয়া’তে তাঁর সঙ্গে দেখা গেছে কৃতি শ্যাননকে।