চঞ্চল চৌধুরী তাঁর চরিত্র সম্পর্কে এখনই কিছু পরিষ্কার করতে চাননি। তিনি বলেন, ‘এতটুকুই বলি, এখানে চমক লাগানো চরিত্র আমার। এই ধরনের গল্পের কাজ বাংলাদেশে আগে হয়েছে কি না, আমার জানা নেই।’

default-image

গল্প সম্পর্কে পরিচালক জানালেন, একটি ফিকশনাল কারাগারে একটি সেল প্রায় ৫০ বছর ধরে বন্ধ। সেই বন্ধ সেলে একজন মানুষকে পাওয়া যায়। মানুষটি কোথা থেকে এসেছেন, কীভাবে এলেন—সেই আবিষ্কার করা নিয়ে গল্প শুরু হয়।

‘তাকদির’ আলোচিত হয়েছে, ‘কারাগার’ নিয়ে বাড়তি কোনো চাপ আছে কি, জানতে চাইলে শাওকি বলেন, ‘প্রায় ৯ মাস ধরে “কারাগার”–এর গল্প নিয়ে কাজ করছি। ভালো কিছু হবে, সেই প্রত্যাশা নিয়েই কাজে নামব। তবে নতুন কাজে চ্যালেঞ্জ তো থাকেই। ওটিটি মার্কেটটা নতুন। এটি এখনো স্থির নয়। এখানকার প্রতিটি কাজ দিয়েই এই মার্কেট বড় হবে। আমরা যারা কাজ করছি, তাদের ওপর একটা দায়িত্ব আছে, সেটাই করার চেষ্টা করছি আমরা।’

default-image

জানা গেছে, এই সিরিজে শতাধিক শিল্পী কাজ করবেন। চঞ্চল ছাড়া বাকিদের নাম এখনই প্রকাশ করতে চাননি পরিচালক। ‘কারাগার’-এর গল্প ও চিত্রনাট্য লিখেছেন নিয়ামতুল্লাহ মাসুম।

ওটিটি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন