বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

গতকাল শুক্রবার ফেসবুকে দুই বাংলার সুপরিচিত সংগীতশিল্পী সাহানা বাজপেয়ী লিখেছেন, ‘আমার গলায় স্ট্রোবোস্কোপিক পরীক্ষা হয়। এ পরীক্ষার ফলাফলে জানতে পারি, আমার ভয়েস বক্সে হেমারেজ হয়েছে। আমাকে বিশ্রামে থাকতে বলা হয়েছে। সম্পূর্ণ বিশ্রাম দিতে হবে গলাকে। প্রায় এক মাস গান গাইতে পারব না, কথা বলতে পারব না, চিৎকারও করতে পারব না। আমার এই অবস্থায় দয়া করে আপনারা আমার পাশে থাকুন। আমিও চেষ্টা করব মূক আমিটার পাশে থাকতে। এই আমিটাকে আমি যে চিনিই না! এই সম্পূর্ণ অজানা আমিটাকেও আমাকে জানতে হবে। যাঁদের ওপর আমি চিৎকার করে উঠি, তাঁরা দয়া করে আমার ধারেকাছে ঘেঁষবেন না এখন।’

default-image

সাহানার পোস্টের মন্তব্যের ঘরে গায়িকার দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছেন পরিচিত, বন্ধু ও শুভাকাঙ্ক্ষীরা। অনেকে এমনও লিখেছেন, এ রোগে গলাকে বিশ্রাম দেওয়া ছাড়া সেরে ওঠার অন্য কোনো পথ নেই। ভক্তদের পরামর্শ, ‘আপনি অবশ্যই বিশ্রাম নেবেন, নিজের খেয়াল রাখবেন।’

default-image

একাধিক সূত্রে জানা গেছে, কণ্ঠের অতিরিক্ত ব্যবহারের ফলে এ ধরনের হেমারেজ হয়। বিশ্রামসহ যত্ন নিলেই বিষয়টি ঠিক হয়ে যায়। তবে জোরে কথা বলা ও চিৎকার করা থেকে বিরত থাকতে হবে। খাবার খাওয়ার সময়ও সাবধানে থাকতে হবে। অবশ্য ভয়েস বক্সের হেমারেজে কণ্ঠের স্থায়ী ক্ষতির আশঙ্কা কম।

গান থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন