একনজরে হোয়াইট হাউস

default-image

১. হোয়াইট হাউস দাঁড়িয়ে আছে যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসি শহরের ১৬০০ পেনসিলভানিয়া অ্যাভিনিউতে।

২. পুরো ভবনটি মূলত তিনটি আলাদা ভাগে বিভক্ত—ওয়েস্ট উইং, ইস্ট উইং ও এক্সিকিউটিভ রেসিডেন্স।

৩. ভবনের মোট আয়তন প্রায় ৫৫ হাজার বর্গফুট।

৪. ১৩২টি কক্ষ, ৩৫টি শৌচাগার ও ৩টি রান্নাঘর আছে এতে।

৫. থিয়েটার হল, সুইমিং পুল, টেনিস কোর্ট, গলফ কোর্ট ও জগিং ট্র্যাকও আছে।

৬. এর দরজার সংখ্যা ৪১২ এবং জানালা ১৪৭টি।

৭. ওঠানামার জন্য আছে ৮টি সিঁড়ি এবং ৩টি লিফট।

৮. ভবনগুলোর বাইরের পুরো অংশ রং করতে প্রায় ৫৭০ গ্যালন রং লাগে।

বিজ্ঞাপন

ওপর থেকে হোয়াইট হাউসের উত্তর দিকের ছবি

default-image

একদম ওপর থেকে হোয়াইট হাউস 

default-image

ওয়েস্ট উইং

default-image

ওয়েস্ট উইং দিয়েই শুরু করা যাক। চারতলা এই ভবনে রয়েছে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ দপ্তর। তার মধ্যে অন্যতম হলো প্রেসিডেন্টস রুম, ওভাল অফিস ও কেবিনেট রুম। আগে প্রেসিডেন্টস রুমে সেক্রেটারি দপ্তর ও প্রেসিডেন্টের দপ্তর ছিল। বর্তমানে এই কক্ষ ডাইনিং রুম বা খাবার ঘর হিসেবে ব্যবহার করা হয়।

default-image

ওভাল অফিসটি বর্তমানে প্রেসিডেন্টের প্রধান দপ্তর। ডিম্বাকৃতির এই কক্ষের জানালাগুলো বুলেটপ্রুফ কাঁচ দিয়ে তৈরি। কক্ষটির অন্দরসজ্জা ও আসবাব প্রেসিডেন্টের পছন্দ অনুযায়ী নির্ধারণ করা হয়।

default-image

ওভাল অফিসের বাইরে ডান দিকে হোয়াইট হাউস রোজ গার্ডেন। এটি বিশেষ অনুষ্ঠান এবং বিশেষ অতিথিদের জন্য ব্যবহার করা হয়।

default-image

কেবিনেট রুমে প্রেসিডেন্ট তাঁর মন্ত্রীসভার সঙ্গে বৈঠক করেন। হোয়াইট হাউসের রীতি অনুযায়ী প্রেসিডেন্ট সব সময় টেবিলের মাঝখানে বসেন।

default-image

গ্রাউন্ড ফ্লোরে আছে সিচুয়েশন রুম। ৫ হাজার বর্গফুটের এই ঘরে প্রেসিডেন্ট আসেন সমস্যার মুখোমুখি হলে। এখানে তিনি বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে শলাপরামর্শ করেন। সিচুয়েশন রুম চালান ন্যাশনাল সিকিউরিটি কাউন্সিলের কর্মীরা।

default-image

হোয়াইট হাউসের প্রেস ব্রিফিং রুম। এখান থেকে সংবাদমাধ্যমের সামনে কথা বলেন প্রেসিডেন্ট।

বিজ্ঞাপন

এক্সিকিউটিভ রেসিডেন্স

default-image

হোয়াইট হাউস চত্বরের কেন্দ্রীয় ভবন হলো এক্সিকিউটিভ রেসিডেন্স। এটি মূলত ওয়েস্ট ও ইস্ট উইংয়ের মাঝখানে অবস্থিত।

default-image
default-image
default-image

এই ভবনে আছে সবুজ, নীল ও লাল কক্ষ। এসব কক্ষের জানালার পর্দা, মেঝের কার্পেটসহ গৃহসজ্জার সামগ্রীর রং কক্ষের নাম অনুসারে হয়ে থাকে।

default-image

একই ভবনের তৃতীয় তলায় আছে প্রেসিডেনশিয়াল বেডরুম স্যুইট। এখানে আছে প্রেসিডেন্ট ও ফার্স্ট লেডির ব্যক্তিগত শোবার ঘর, আরেকটি ছোট শোবার ঘর এবং সাজসজ্জার ঘর।

ইস্ট উইং

default-image

এক্সিকিউটিভ রেসিডেন্সের পুবদিকে দ্বিতল ভবনটি হলো ইস্ট উইং। ভবনের দ্বিতীয় তলায় আছে ফার্স্ট লেডির দপ্তর।

default-image

এ ছাড়া এই ভবনে আছে একটি পারিবারিক থিয়েটার হল, যেখানে প্রেসিডেন্ট ও তাঁর পরিবারের সদস্যরা দিনের যেকোনো সময় নিজেদের পছন্দের সিনেমা উপভোগ করতে পারেন।

default-image

এক্সিকিউটিভ রেসিডেন্সের ফার্স্ট ফ্লোরে আছে ক্রস হল। এটি হোয়াইট হাউসের সবচেয়ে প্রশস্ত হলওয়ে। ক্রস হল স্টেট ডাইনিং রুম এবং ইস্ট রুমের সঙ্গে এক্সিকিউটিভ রেসিডেন্সের সংযোগ স্থাপন করেছে।

সূত্র: বিজনেস ইনসাইডার ও হোয়াইট হাউস মিউজিয়াম

মন্তব্য পড়ুন 0