বার্তা সংস্থা এএনআই খবরটি নিশ্চিত করেছে এই টুইট বার্তায়, ‘ক্রিকেটার ঋদ্ধিমান সাহাকে হুমকি দেওয়ায় বিসিসিআই সাংবাদিক বোরিয়া মজুমদারকে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছে।’ গত ফেব্রুয়ারিতে বোরিয়ার নাম মুছে দিয়ে তাঁর পাঠানো বার্তার স্ক্রিনশট টুইটে দিয়েছিলেন ঋদ্ধিমান। সদ্য দল থেকে বাদ পড়া ঋদ্ধিমানের কাছ থেকে সাক্ষাৎকার আদায় করতে না পেরে ‘এটা মনে রাখব আমি। এটা করা একদম উচিত হয়নি তোমার’ বলে হুমকি দিয়েছিলেন ওই সাংবাদিক।

default-image

ঋদ্ধিমান প্রথমে সাংবাদিকের নাম বলতে রাজি হননি। কিন্তু বোর্ডের তদন্ত কমিটির সামনে সাক্ষ্য দেওয়ার পর বোরিয়া নিজেই টুইটারে হাজির হন। দাবি করেন, তাঁর পাঠানো বার্তা বিকৃত করে দেখিয়েছেন ভারতীয় উইকেটকিপার।

তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছিল এ ঘটনায়। বোর্ডের সহসভাপতি রাজীব শুক্লা, কোষাধ্যক্ষ অরুণ ধামাল এবং শীর্ষ কাউন্সিল সদস্য প্রভতাজ ভাটিয়া গত মাসে দুই পক্ষের সাক্ষ্য নিয়েছেন এবং দুই পক্ষের যুক্তি গ্রহণ করেছেন। শেষ পর্যন্ত বোরিয়া মজুমদারকে দোষী মনে হয়েছে তাঁদের কাছে।

বোরিয়া মজুমদারের দুই বছরের নিষেধাজ্ঞায় যা যা অন্তর্ভুক্ত

  • ভারতে আন্তর্জাতিক ও ঘরোয়া—কোনো ধরনের টুর্নামেন্টে সাংবাদিক হিসেবে প্রবেশাধিকার (অ্যাক্রেডিটেশন) পাবেন না।

  • ভারতে নিবন্ধিত কোনো খেলোয়াড়ের সাক্ষাৎকার নিতে পারবেন না।

  • বোর্ড বা সদস্য অ্যাসোসিয়েশনের কোনো ক্রিকেটীয় অবকাঠামোতে (স্টেডিয়াম, অনুশীলন মাঠ, জিম) ঢুকতে পারবেন না।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন