ফাইনালে জ্বলে উঠতে ব্যর্থ হলেও সেমিফাইনালে ভারতকে ধসিয়ে দেওয়ার পথে অধিনায়ক জস বাটলারের সঙ্গে গড়েছিলেন দুর্দান্ত এক জুটি। সেই ম্যাচের প্রশংসিতও হয়েছেন অনেক। আর এখন তো বিশ্বকাপজয়ী দলের সদস্য!

ইংল্যান্ডের হয়ে বিশ্বকাপ জয়ের অনুভূতি জানাতে গিয়ে হেলস বলেছেন, ‘অবিশ্বাস্যভাবে দারুণ অনুভূতি। শেষ ৬-৮ সপ্তাহ খুবই বিশেষ এবং উপভোগ্য ছিল। তবে এটা সবকিছুর মাত্রাকে আরও বাড়িয়ে দিয়েছে। আমি এই টুর্নামেন্ট দারুণ উপভোগ করেছি এবং গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ভালো খেলেছি।’

ফাইনালে গুরুত্বপূর্ণ সময়ে ১৩ বলে ১৯ রানের ইনিংস খেলে অবদান রেখেছেন মঈন। বিশ্বসেরা হওয়ার অনুভূতি কেমন জানতে চাইলে এই অলরাউন্ডার বলেছেন, ‘এটা আমার ক্রিকেটর ক্যারিয়ারে সেরা দিনগুলোর একটি। আমি মনে করি, দল হিসেবে এটা আমাদের প্রাপ্য। লম্বা সময় ধরে আমরা দারুণ ক্রিকেট খেলেছি। অবশ্যই কখনো কখনো পারিনি। তবে সেমিতে এবং আজ দুর্দান্ত পাকিস্তান দলের বিপক্ষে জিততে পারার অনুভূতি দারুণ। বিশেষ করে পরিবার এবং ভক্তদের সামনে জিততে পারার অনুভূতি বিশেষ কিছু। এটা মূলত নিজের লক্ষ্যে অবিচল থাকার ব্যাপার।’

বিশ্বজয়ের সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ার মাঠে জিততে পারাকেও বেশ গুরুত্বপূর্ণ মনে হচ্ছে ওকসের কাছে। ম্যাচ শেষে বলেছেন, ‘আমরা অস্ট্রেলিয়ায় কিছু ম্যাচ হেরেছিলাম। তবে এটা নিয়ে দারুণ খুশি।’

হ্যারি ব্রুকের কাছে দিনটি অনন্যসাধারণ হলেও এই স্কোয়াড নিয়ে বিশ্বকাপ জয়ের ব্যাপারে তিনি আত্মবিশ্বাসী ছিলেন আগেই, ‘আমি সব সময় ভেবেছি এই দল নিয়ে এই স্কোয়াড নিয়ে আমরা বিশ্বকাপ জিততে পারব। এটা অনন্যসাধারণ একটি দিন।’