ক্রিকেটবিষয়ক পোর্টাল ইএসপিএন ক্রিকইনফো জানিয়েছে, কোহলির কক্ষে ঢুকে দৃশ্যধারণের ঘটনাটি ঘটেছে ৮ অক্টোবর। সে সময় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রস্তুতি নিতে পার্থের ক্রাউন টাওয়ার্স হোটেলে ছিল ভারতীয় দল। কোহলির ইনস্টাগ্রাম পোস্টের পর নড়েচড়ে বসে হোটেল কর্তৃপক্ষ ও আইসিসি।

পরে হোটেল ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ এক বিবৃতিতে কোহলির কাছে দুঃখ প্রকাশ করে। বিবৃতিতে বলা হয়, সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের ইতিমধ্যে দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে, ‘আমরা ভুক্তভোগী অতিথির কাছে অকপট ক্ষমা প্রার্থনা করছি। এটি যেন বিচ্ছিন্ন ঘটনা হয়ে থাকে, তা নিশ্চিত করতে পদক্ষেপ নেওয়া অব্যাহত থাকবে। ইতিমধ্যে জড়িত ব্যক্তিদের সরিয়ে দেওয়া হয়েছে এবং সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম প্ল্যাটফর্ম থেকে ভিডিওটি দ্রুত মুছেও ফেলা হয়েছে।’ এ ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে বলেও জানিয়েছে ক্রাউন টাওয়ার্স।

কোহলির কক্ষের ভিডিও ধারণ করে টিকটকে ছড়িয়ে দেওয়ার ঘটনায় আইসিসিও বিবৃতি দিয়েছে। ‘গোপনীয়তার ব্যাপক লঙ্ঘনে হতাশা’র কথা জানিয়ে লেখা হয়, ‘আমরা ইভেন্ট হোটেল এবং নিরাপত্তা প্রদানকারীদের সঙ্গে কাজ চালিয়ে যাচ্ছি, যেন এটি একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা থেকে যায় এবং খেলোয়াড়ের গোপনীয়তা সম্পূর্ণভাবে বজায় থাকে।’