রোববার অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের বিপক্ষে ম্যাচে প্রথমার্ধের ২৫ মিনিটে চোটে পড়ে মাঠ ছাড়েন যান লো সেলসো। তাঁর সেই চোট বিশ্বকাপের আগে দুশ্চিন্তা বাড়িয়েছিল আর্জেন্টাইন সমর্থকদের।

স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম ‘এএস’ জানিয়েছে, এ মাসের ২০ তারিখে শুরু হতে যাওয়া বিশ্বকাপের আগে লো সেলসোর সেরে ওঠা নিয়ে শঙ্কা রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, এই চোটে দুই সপ্তাহের মতো মাঠের বাইরে থাকতে হবে লো সেলসোকে। পরবর্তী সময়ে আরও পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর এই মিডফিল্ডারের বিশ্বকাপ ভবিষ্যৎ সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যাবে।

ভিয়ারিয়ালে ধারে খেলতে আসার পর গত মৌসুমের শেষ ভাগে দারুণ খেলেছেন সেলসো। ‘হলুদ সাবমেরিন’দের চ্যাম্পিয়নস লিগ সেমিফাইনালে খেলার পথেও দারুণ অবদান ছিল লো সেলসোর। শেষ চারে খেলার পথে জুভেন্টাস ও বায়ার্ন মিউনিখের মতো দলকে হারিয়েছিল ভিয়ারিয়াল।

শুধু ক্লাব ফুটবলেই নয়, আর্জেন্টিনার জার্সিতেও কয়েক বছর ধরে নিয়মিত মুখ লো সেলসো। গত বছর ‘আলবিসেলিস্তি’দের হয়ে জিতেছেন কোপা আমেরিকাও। আর্জেন্টিনার হয়ে সর্বশেষ দুই আন্তর্জাতিক ম্যাচেও একাদশে ছিলেন লো সেলসো।

তাঁর এই চোট নিশ্চিতভাবেই আর্জেন্টাইন কোচ লিওনেল স্কালোনির কপালে চিন্তার ভাঁজ বাড়াবে। এর আগে পাওলো দিবালা, লিয়ান্দ্রো পারেদেস ও আনহেল দি মারিয়াও চোটে পড়েছেন। বিশ্বকাপের আগে এমন চোটের হিড়িক স্কালোনির বিশ্বকাপ পরিকল্পনাতেও প্রভাব ফেলবে, তা বলাই বাহুল্য।