শরীর সায় দিলেও এখন পর্যন্ত খবর, পেলের চিকিৎসকেরা নাকি কিছুতেই ব্রাজিলের হয়ে তিনটি বিশ্বকাপ জেতা তারকাকে কাতারে ভ্রমণে যেতে দিতে চান না। কিছুদিন আগেও পেলে আশাবাদী ছিলেন, তিনি বিশ্বকাপ উপভোগ করতে কাতার যেতে চান।
পেলের কাতার–যাত্রা নিয়ে সংশয় আছে ব্রাজিল ফুটবল ফেডারেশনেরই।

এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ‘পেলের বয়স এখন ৮২ বছর। তিনি নানা ধরনের শারীরিক সমস্যায় ভুগছেন। এ অবস্থায় দীর্ঘ বিমানভ্রমণের ঝুঁকি নেওয়াটা ঠিক হবে কি না, সেটি নিয়ে ভাবছেন তাঁর চিকিৎসকেরা। কিন্তু তিনি নিজে আবার কাতার যাওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। আমরা প্রয়োজনীয় পদক্ষেপগুলোও নিয়ে রেখেছি। এখন চিকিৎসকেরা অনুমতি দিলেই তিনি কাতার যাবেন।’

চিকিৎসকদের কথা, ‘পেলে ইচ্ছা প্রকাশ করলেও তিনি আসলে অসুস্থ। তাঁর সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণ প্রয়োজন। কাতারে গেলে তাঁর গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ার শঙ্কাই বেশি। আমরা তাঁকে পরামর্শ দিয়েছি বিশ্বকাপটা বাড়িতে বসে টিভিতে দেখতে। তিনি আসলে ভ্রমণের মতো শারীরিক অবস্থায় নেই।’

গতবার ম্যারাডোনা বিশ্বকাপের শোভা বাড়ালেও পেলে ছিলেন না। এবার ম্যারাডোনার সঙ্গে থাকবেন না পেলেও। মাঠের বাইরে বিশ্বকাপ যে অনেকটাই রং হারাবে, সেটি বলাই যায়।