কীভাবে? খোলাসা করা যাক। লিডসের ব্রাজিলের উইঙ্গার রাফিনিয়াকে দলে টানার ব্যাপারে বড্ড আগ্রহ ছিল চেলসির। কিন্তু তাঁর ওপর নজর পড়ল জাভির। ব্যস, ছোটবেলার পছন্দের ক্লাবের আগ্রহের কথা শুনে রাফিনিয়াও চেলসিতে যাই যাই করতে করতে নাম লেখান বার্সেলোনায়। একই কাজ করলেন সেভিয়ার ফরাসি ডিফেন্ডার জুলস কুন্দেও।

দুটি দলবদলেই বলতে গেলে বার্সেলোনার বাড়া ভাতে ছাই দিয়েছে চেলসি, ফুটবলীয় ভাষায় বলতে চাইলে বলা যায়-বার্সেলোনা ‘গোল’ দিয়েছে চেলসিকে। ওদিকে রবার্ট লেভানডফস্কি বায়ার্ন ছাড়তে চান জানার পর পিএসজি আর চেলসি এই পোলিশ স্ট্রাইকারকে আনার ব্যাপারে আগ্রহ দেখালেও লেভার মনে ছিল শুধুই বার্সা। অর্থাৎ, এখানেও বার্সার কাছে চেলসির হার!

default-image

বার্সার কাছে দলবদলের লড়াইয়ে আপাতত হারার পর চেলসি নজর দিয়েছে ম্যানচেস্টার সিটির ওপর। বহুদিন ধরে দলে একজন নতুন লেফটব্যাক আনতে চাইছে পেপ গার্দিওলার দল। ইউক্রেনের তারকা আলেকসান্দর জিনচেঙ্কো ক্লাব ছাড়ার পর তো আরও বেশি করে। নতুন লেফটব্যাক হিসেবে ব্রাইটনের স্প্যানিশ লেফটব্যাক মার্ক কুকুরেয়াকে বহুদিন ধরেই পছন্দ গার্দিওলার। ব্রাইটনের এই কার্যকর লেফটব্যাক বার্সেলোনার একাডেমি লা মাসিয়ার ছাত্র, সে হিসেবেও কুকুরেয়ায়ার শক্তি-সামর্থ্য সম্পর্কে বেশ ধারণা আছে বার্সেলোনার সাবেক কোচ গার্দিওলার।

কুকুরেয়ার প্রতি সিটির আগ্রহের কথা জানতে পেরে একধাক্কায় ২৪ বছর বয়সী এই লেফটব্যাকের দাম ৫ কোটি পাউন্ড হেঁকেছে। সিটি আবার চার কোটি পাউন্ডের চেয়ে এক পয়সাও বেশি খরচ করতে চায় না এই লেফটব্যাকের পেছনে। আর এখানেই সিটির সঙ্গে ‘লড়াই’য়ে নেমেছে চেলসি।

কুন্দে, নাথান আকের মতো ডিফেন্ডারদের না পেয়ে চেলসির কোচ টমাস টুখেল এবার হাত বাড়িয়েছেন এই ঝাঁকড়াচুলো ডিফেন্ডারের দিকে। সিটি চার কোটি পাউন্ড দিতে চাইলেও চেলসি আবার ব্রাইটনের দাবি অনুযায়ী পুরো পাঁচ কোটি পাউন্ড দিতে প্রস্তুত।

দলবদলবিষয়ক সাংবাদিক ফাব্রিজিও রোমানোর মতে, চেলসির সঙ্গে ব্যক্তিগত বেতন-বোনাস নিয়ে আলোচনা সেরে রেখেছেন এই স্প্যানিশ। দাম নিয়ে দুই দল সম্মতিতে পৌঁছালেই কুকুরেয়া হয়ে যাবেন চেলসির। আর দলবদলের লড়াইয়ে বার্সার কাছে একের পর এক বাজিমাত হতে থাকা চেলসি জয়ের স্বাদ পাবে সিটিকে হারিয়ে!

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন