ক্লাব ছাড়ার জন্য নিজের এজেন্ট জর্জে মেন্দেজকে দিয়ে ইউনাইটেডের কাছে বার্তা পাঠিয়েছেন, বিভিন্ন ক্লাবের কাছে নিজের খেলার আগ্রহের কথা জানিয়েছেন, ইউনাইটেডের হয়ে প্রাক্‌-মৌসুমের ম্যাচগুলো খেলতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন—কিছুতেই কিছু হচ্ছে না। চেলসি, বায়ার্ন, পিএসজি, স্পোর্তিংয়ের মতো ক্লাবগুলো আকারে-ইঙ্গিতে জানিয়ে দিয়েছে, রোনালদোকে দরকার নেই তাদের।

ওদিকে আতলেতিকো মাদ্রিদের সমর্থকেরা তো রোনালদোকে যেন না নেওয়া হয়, সে জন্য অনলাইনে পিটিশনই শুরু করে দিয়েছেন। রোমা, নাপোলির মতো ক্লাবগুলোর আগ্রহ থাকলেও সামর্থ্য নেই। অবস্থার পরিবর্তন না ঘটলে রোনালদো যে ইউনাইটেডেই থাকবেন, সেটা নিশ্চিত।

default-image

কিন্তু রোনালদো নিজেই হয়তো সেটা হতে দিতে চাইছেন না। চাইছেন না দেখেই আবারও ইউনাইটেডের কর্তাব্যক্তিদের সঙ্গে নিজের ভবিষ্যৎ নিয়ে আলোচনায় বসবেন রোনালদো, এমনটাই খবর এসেছে। জানিয়েছে ব্রিটিশ ক্রীড়াবিষয়ক ওয়েবসাইট দ্য অ্যাথলেটিক।

৩৭ বছর বয়সী এই তারকা ইউনাইটেডের কোচ এরিক টেন হাগ ও অন্য কর্তাব্যক্তিদের সঙ্গে সামনাসামনি বসে নিজের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দিতে চান। জানাতে চান, ইউনাইটেডে আর খেলতে চান না তিনি।

তবে ইউনাইটেডের কর্মকর্তারা আশা করছেন, বৈঠকের পর রোনালদো ইউনাইটেডের হয়ে খেলার ইচ্ছার কথাই ব্যক্ত করবেন আবারও। ক্লাবকর্তাদের সঙ্গে রোনালদোর কথা বলতে চাওয়ার বিষয়টাকে তাঁরা ইতিবাচক হিসেবেই দেখছেন—এমনটাই জানিয়েছে দ্য অ্যাথলেটিক। থাইল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ায় প্রাক্‌-মৌসুমের ম্যাচ খেলে ম্যানচেস্টারে ফিরেছে দলটা।

এক দিন ছুটি কাটিয়ে আজ মঙ্গলবার আবারও অনুশীলনে ফিরবেন ম্যাগুয়ার-দা হেয়ারা। তখনই ক্লাবে এসে কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন রোনালদো।
ইউনাইটেডের সঙ্গে রোনালদোর বর্তমান চুক্তির মেয়াদ আরও এক বছর আছে। কিন্তু সেটা শেষ না করেই অন্যত্র চলে যেতে চাইছেন রোনালদো। টেন হাগ অবশ্য তাঁকে ছাড়তে চান না।

ফুটবল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন