ব্রাজিলের আক্রমণভাগ এবার তারকায় ভরপুর। নেইমারের সঙ্গে আছেন ভিনিসিয়ুস জুনিয়র, রদ্রিগো, রাফিনিয়া, রিচার্লিসন এবং গ্যাব্রিয়েল জেসুসরা। তাঁদের ভিড়ে প্রথম একাদশে জায়গা পাওয়া বেশ কঠিনই হবে পেদ্রোর।

যদিও পেদ্রো একাদশে জায়গা পাওয়া নিয়ে ভাবছেন না। তাঁর ভাবনার পুরোটা জুড়েই ব্রাজিলকে ষষ্ঠ বিশ্বকাপ শিরোপা জেতানো, ‘আমি শৈশবের স্বপ্ন পূরণ করেছি। বিশ্বকাপ বড় প্রতিযোগিতা, সবাই অসাধারণ ফুটবলার। জায়গা পাওয়া নিয়ে চিন্তা নেই। পেছনে ফিরে তাকিয়ে দেখুন, কিসের মধ্যে দিয়ে আমি গিয়েছি। চোটের কারণে দলে ডাক পাচ্ছিলাম না। ফ্ল্যামেঙ্গোতেও বাজে সময় কাটিয়েছি। ঈশ্বরকে ধন্যবাদ, এই সুযোগটা পেয়েছি। এখন শুধু বিশ্বকাপে মনোযোগ দেওয়ার সময়। কারণ, আমরা ষষ্ঠ শিরোপা জিততে চাই।’

পেদ্রো বিশ্বকাপ দলে ডাক পেয়েছেন ফ্ল্যামেঙ্গোর হয়ে পারফর্ম করে। ২০২১-২২ মৌসুমে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ২৯টি গোল করেছেন এই ফরোয়ার্ড। সে কারণেই ব্রাজিল কোচ তিতের চোখে পড়েন। তিউনিসিয়ার বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচে তাঁকে খেলার সুযোগ করে দেন তিতে। সে ম্যাচে ভালোই খেলেছেন পেদ্রো।

বিশ্বকাপ দলে ডাক পেয়ে ক্লাবের প্রতি বিশেষ কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন পেদ্রো, ‘ফ্ল্যামেঙ্গোতে সুযোগ পেয়ে আগের সবকিছু ভুলে গিয়েছিলাম। আমি জানতাম, এখানে ভালো খেললে জাতীয় দলের দরজা আমার জন্য খুলে যাবে। এটা আমাকে অনুপ্রেরণা দিয়েছে। আমার পাশে থাকার জন্য ক্লাবকে ধন্যবাদ।’