সাত দশক পর চ্যাম্পিয়নশিপে নেমে যাওয়ার শঙ্কায় কয়েক সপ্তাহ ধরে সমর্থকেরা বেশ ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছেন। ‘হুমকি থাকা’য় ক্লাবের সিইওসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের কয়েকজন ম্যাচের দিন গুডিসন পার্কেও যাচ্ছিলেন না।

শেষ পর্যন্ত মাঠের ফুটবলের দুরবস্থার কোপটা পড়ল প্রধান কোচ ও তাঁর সহকারীদের ওপর। সোমবার দুপুর থেকেই ল্যাম্পার্ডকে সরিয়ে দেওয়ার গুঞ্জন ওঠে ব্রিটিশ মিডিয়ায়। ক্লাবের পক্ষ থেকে বিষয়টি নিশ্চিত করে বিবৃতি দেওয়া হয় রাতে।

ল্যাম্পার্ড ও তার দলকে ধন্যবাদ জানিয়ে বিবৃতিতে লেখা হয়, ‘ক্লাবের প্রতি তাদের দায়বদ্ধতা ও নিবেদন ছিল দলের দৃষ্টান্ত তৈরি করা। কিন্তু সাম্প্রতিক ফল ও লিগে বর্তমান অবস্থানের কারণে কঠিন সিদ্ধান্তটি নিতে হয়েছে।’

বিবিসি জানিয়েছে, ল্যাম্পার্ডের জায়গায় বিয়েলসাকে নিয়োগ দিতে পারে এভারটন। আর্জেন্টাইন এই কোচের হাত ধরে চ্যাম্পিয়নশিপ থেকে প্রিমিয়ার লিগে ওঠে লিডস ইউনাইটেড। তবে গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে লিডস তাঁকে বরখাস্ত করে।

এরই মধ্যে এভারটন মালিক মোশিরি বিয়েলসার সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন বলে জানিয়েছে যুক্তরাজ্যের দ্য এক্সপ্রেস। তবে দায়িত্ব নেবেন কি না স্পষ্ট নয়। এভারটনের সম্ভাব্য কোচের তালিকায় আছেন সাবেক সাউদাম্পটন কোচ রালফ হাসেনহাটলও।
শেষ পর্যন্ত এভারটন ডাগআউটে যিনিই দাঁড়ান, শুরুতেই কঠিন পরীক্ষা দিতে হবে। লিগে এভারটনের পরের ম্যাচ ৪ ফেব্রুয়ারি, প্রতিপক্ষ পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে থাকা আর্সেনাল।