ফেসবুকের নিউজফিডের ওপরে লাইভ, রুম, গ্রুপের পাশেই দেখা মিলবে রিলস ফিচারের। এতে ক্লিক করে ভিডিও বিনিময়ের পাশাপাশি অন্যের রিলস ভিডিওগুলোও দেখা যাবে। রিলসে বিনিময় করা ভিডিওতে ব্যানার ও স্টিকার বিজ্ঞাপন দেখাবে ফেসবুক। বিজ্ঞাপনের আয় থেকে ভিডিও নির্মাতাদের অর্থও দেবে তারা। শুধু তা–ই নয়, ভিডিও নির্মাতারা চাইলে নিজেরাই ভিডিওর নিচে স্টিকার বিজ্ঞাপন দেখিয়ে সরাসরি আয় করতে পারবেন। রিলস ভিডিওর পর্দাজুড়ে বিজ্ঞাপন দেখানোর পরিকল্পনাও রয়েছে ফেসবুকের। সবকিছু ঠিক থাকলে অল্প কিছুদিনের মধ্যেই ভিডিওর পর্দাজুড়ে বিজ্ঞাপন দেখা যাবে। ফলে আয়ের পরিমাণও বাড়বে।

২০২০ সালে নিজেদের মালিকানাধীন ছবি ও ভিডিও বিনিময়ের নেটওয়ার্কিং সেবা ইনস্টাগ্রামে রিলস ফিচার চালু করে মেটা। গত বছর থেকে যুক্তরাষ্ট্রসহ বেশ কিছু দেশে ফেসবুকের জন্য ফিচারটি চালু করা হয়। এবার বিশ্বের ১৫০টিরও বেশি দেশে ফিচারটি ব্যবহারের সুযোগ মিলবে। মেটার প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ ফেসবুক বার্তায় জানিয়েছেন, ‘রিলস এরই মধ্যে আমাদের সবচেয়ে দ্রুত বর্ধনশীল কনটেন্ট ফরম্যাট, যা আজ থেকে বিশ্বজুড়ে সব ব্যবহারকারীর জন্য সহজলভ্য করা হয়েছে।’

এ মাসের শুরুর দিকে মেটার পক্ষ থেকে বলা হয়, অ্যাপলের নতুন গোপনীয়তা নীতিমালার কারণে এ বছরে তাদের আয়ের পরিমাণ ১০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার কম হয়েছে। এ খবরে এক দিনেই মেটার বাজার মূলধন ২৩২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার কমে যায়। ফেসবুকের তথ্যমতে, বর্তমানে ব্যবহারকারীরা যত সময় ফেসবুকে থাকেন, তার অর্ধেক সময়ই ভিডিও দেখেন। আর তাই রিলস ফিচারটির মাধ্যমে বেশি বিজ্ঞাপন দেখিয়ে নিজেদের আয়ের পরিমাণ বাড়াতে চায় মেটা।


তবে এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত বাংলাদেশে ফেসবুকের রিলস ফিচারটি চালু করা হয়নি।
সূত্র: রয়টার্স, এনডিটিভি

প্রযুক্তি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন