টানা ৩৪ ঘণ্টা চলা এ প্রতিযোগিতায় মোট নয়টি দল অংশ নেয়। বিজয়ী দলগুলো পেয়েছে মোট দেড় লাখ টাকা পুরস্কার। বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন প্রতিযোগিতার আয়োজক বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্কের (বিডিওএসএন) সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসান। ভবিষ্যতে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ইন্টার্নশিপ ও ফেলোশিপের সুযোগও পাবে দলগুলো।

এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিডিওএসএন জানিয়েছে, প্রতিযোগিতায় শিক্ষার্থীরা জাতীয় পরিচয়পত্র যাচাই, বৈদেশিক মুদ্রা দেশে পাঠানোর প্রক্রিয়া, সনদ যাচাই পদ্ধতির উন্নয়নসহ বিভিন্ন নাগরিক সমস্যা সমাধানের প্রকল্প তৈরি করেন।

আয়োজনের প্রধান পৃষ্ঠপোষক অ্যাফাইনের প্রধান কারিগরি কর্মকর্তা তারিক আদনান জানান, আমাদের দেশে ব্লক চেইন প্রকৌশলীর সংখ্যা কম। আর তাই ব্লক চেইন প্রকৌশলীদের পাশাপাশি সফটওয়্যার প্রকৌশলী হতে আগ্রহী স্নাতকেরাও এ খাতে কাজ করতে পারেন। এ ধরনের হ্যাকাথন ব্লকচেইন সফটওয়্যার সম্পর্কে ধারণা দেওয়ার পাশাপাশি আগ্রহীদের ব্লকচেইন সফটওয়্যার প্রকৌশলী হিসেবে গড়ে তুলতে সহায়তা করবে।

তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি (আইসিটি) শিল্পে ব্লকচেইন সফটওয়্যার প্রকৌশলী হতে আগ্রহী স্নাতকদের জন্য এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। প্রতিযোগিতা আয়োজনে সহযোগিতা করেছে প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান উইন্ড ও অ্যাঙ্করব্লক।