এক ব্লগ বার্তায় জুমের প্রধান পণ্য কর্মকর্তা ওডেড গ্যাল জানান, নতুন সেবাগুলো এমনভাবে সাজানো হয়েছে, যাতে ই-মেইল, অনলাইন মিটিং, ফোনকল, দলগত চ্যাটের পাশাপাশি যোগাযোগের সব সুবিধা পাওয়া যায়। ফলে ব্যবহারকারীরা ই-মেইলে থাকা বিভিন্ন তথ্য চাইলে চ্যাটে যুক্ত করতে পারবেন। প্রাথমিকভাবে কানাডা ও যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসকারী জুম ব্যবহারকারীরা এসব সুবিধা পরখ করতে পারবেন।

নিজস্ব ই-মেইল সেবা ব্যবহারকারীদের বিনা মূল্যে অনলাইনে তথ্য সংরক্ষণের সুযোগ দেবে জুম। ফলে ছোট ও মাঝারি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানগুলো স্বচ্ছন্দে জুমের ই-মেইল সেবা ব্যবহার করতে পারবে। প্রাথমিকভাবে জুম প্রোতে ১৫ গিগাবাইট এবং জুম বিজনেসে ১০০ গিগাবাইট পর্যন্ত ই-মেইল ধারণক্ষমতা পাওয়া যাবে।

দুই বছর ধরে মেইল ও ক্যালেন্ডার সেবা তৈরিতে কাজ করছে জুম। নতুন এ সেবাগুলো চালু হলে জুম অ্যাপ্লিকেশনের ওপরের দিকে ই–মেইল এবং ক্যালেন্ডারের নতুন আইকন দেখা যাবে। ফলে দ্রুত সেবাগুলো ব্যবহার করা যাবে।
সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া, জেডডিনেট