যুক্তরাষ্ট্রের সর্বশেষ উড়োজাহাজটি কাবুলের বিমানবন্দর ত্যাগের পর তালেবান সদস্যরা সেখানে প্রবেশ করেন। এ ঘটনা ভিডিও করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেস টাইমসের প্রতিনিধি নাবিহ বুলস। এই ভিডিওতে তিনি বলেন, ‘আমরা এখন তালেবানের সশস্ত্র সদস্যদের সঙ্গে আছি। মিনিটখানেক আগেও এর নিয়ন্ত্রণ ছিল মার্কিন বাহিনীর হতে। এখন তালেবান এই বিমানবন্দরের নিয়ন্ত্রণ নিচ্ছে।’

যুক্তরাষ্ট্রের আরেক গণমাধ্যম সিএনএনের খবরে বলা হয়েছে, তালেবান সদস্যরা কাবুল বিমানবন্দরে প্রবেশের পর পরীক্ষা করছেন, কী রেখে গেছে মার্কিন বাহিনী।

এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের সেন্ট্রাল কমান্ডের প্রধান মেরিন জেনারেল ফ্রাঙ্ক ম্যাকেঞ্জি স্থানীয় সময় গতকাল সোমবার পেন্টাগনে এক সংবাদ সম্মেলনে সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন। কাবুল থেকে চূড়ান্ত পর্যায়ে মার্কিন সেনাদের সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। ম্যাকেঞ্জি বলেন, ‘আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার সম্পন্ন হওয়ার ঘোষণা দিতে আমি এখানে এসেছি। আমরা আফগানিস্তানের সবাইকে বের করে আনতে পারিনি। তবে আমি মনে করি, যদি আমরা আরও ১০ দিন থাকতে পারতাম, তাহলে আমরা সবাইকে সরিয়ে নিতে পারতাম। আর এমনটাই আমাদের ইচ্ছা ছিল।’ ম্যাকেঞ্জি এটাও স্বীকার করেন, এখনো আফগানিস্তানে অনেক মানুষ হতাশ। পরিস্থিতি খুবই কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে

বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, ম্যাকেঞ্জি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র ও তাঁর মিত্ররা আফগানিস্তান থেকে প্রায় ১ লাখ ২৩ হাজার মানুষকে সরিয়ে নিতে সক্ষম হয়েছে।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন