বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ওয়েডিং বলেন, ‘সমস্যার উপশম না হলেও আমি চিকিৎসকের কাছ থেকে চলে আসি। এরপর ছুটির দিনের অধিকাংশ সময় আমি বিছানায় শুয়ে কাটাই। এই সময় হেয়ার ড্রায়ার দিয়ে কান শুকানোর চেষ্টাও করি। আমি যখন শুয়ে থাকছিলাম, তখন মনে হচ্ছিল, কানের ভেতর পানি গড়াচ্ছে।’ তিনি বলেন, ‘কানের এই সমস্যা সমাধানে এমন কিছু নেই যে আমি করিনি। কানের ময়লা পরিষ্কারের চেষ্টা করেছি, লম্ফঝম্প করেছি, চুইংগাম চিবিয়েছি, এমনকি আমি দৌড়েছিও।’

যুক্তরাষ্ট্রের আরেক গণমাধ্যম ইনসাইডারের খবরে বলা হয়েছে, যদিও চিকিৎসক ওয়েডিংকে নিশ্চয়তা দিয়েছিলেন, এই সমস্যা সেরে যাবে। হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার করলে কানের ভেতর যেটুকু পানি জমে আছে, তা শুকিয়ে যাবে। এ প্রসঙ্গে ওয়েডিং বলেন, দুই দিন এই হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহারের ফলে তেলাপোকাটি কানের মধ্যে সিদ্ধ হয়ে গিয়েছিল।

এ অবস্থায় শনি ও রোববার কাটান ওয়েডিং। পরে সোমবার আবার চিকিৎসকের কাছে যান তিনি। এবার কানের রোগ বিশেষজ্ঞের কাছে যান তিনি। তিনি বলেন, এই চিকিৎসক কানের ভেতরে দেখামাত্র বুঝতে পারেন, কানে পোকা ঢুকেছে। কিন্তু চিকিৎসক নিজেও বুঝতে পারছিলেন না কীভাবে এটা ঘটল।

যাহোক, সোমবার শেষমেশ কান থেকে তেলাপোকাটি বের করতে সক্ষম হন চিকিৎসক।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন