ক্ষেপণাস্ত্রটি ছোড়ার প্রায় ২৫ মিনিট পরে জাপানের কোস্ট গার্ড জানায় সেটি প্রশান্ত মহাসাগরে গিয়ে পড়েছে। এ ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি। 

২০১৭ সালের পর দ্বিতীয়বারের মতো জাপানের ওপর দিয়ে ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ল উত্তর কোরিয়া। দেশটির ব্যালিস্টিক ও পারমাণবিক অস্ত্র পরীক্ষার ওপর জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। কিন্তু এ নিষেধাজ্ঞা অগ্রাহ্য করে চলছে দেশটি। 

এর আগে গতকাল বুধবার বিভিন্ন ধরনের অন্তত ২৩টি ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়ে উত্তর কোরিয়া। এর মধ্যে একটি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র প্রথমবারের মতো দক্ষিণ কোরিয়ার জলসীমার কাছাকাছি এসে পড়ে। 

কোনো ধরনের পূর্বসতর্কতা-আলোচনা ছাড়াই অন্য কোনো দেশ অভিমুখে বা দেশের ওপর দিয়ে ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়াটা আন্তর্জাতিক রীতিনীতির সম্পূর্ণ লঙ্ঘন। 

বেশির ভাগ দেশ এ ধরনের কর্মকাণ্ড পুরোপুরি এড়িয়ে যায়। কারণ, এ ধরনের কর্মকাণ্ড নিয়ে সহজেই ভুল–বোঝাবুঝি হতে পারে। একে অত্যন্ত উসকানিমূলক কাজ হিসেবে দেখা হয়ে থাকে।