পেলোসির সম্ভাব্য তাইওয়ান সফর নিয়ে এমন হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। আজ চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ঝাও লিজিয়ান বলেন, যুক্তরাষ্ট্র সরকারের তৃতীয় গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি। তিনি যদি তাইওয়ান সফর করেন তাহলে ‘এর রাজনৈতিক পরিণতি হবে গুরুতর।’

গত রোববার পেলোসির কার্যালয় থেকে তাঁর এশিয়া সফর শুরুর ঘোষণা দেওয়া হয়। তাতে বলা হয়, স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি কংগ্রেসের একদল প্রতিনিধিসহ এশিয়ার চার দেশে সফর শুরু করেছেন। সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপান সফর করবেন তাঁরা। তবে তাঁর তাইওয়ান সফরের কোনো ঘোষণা দেওয়া হয়নি।

সাম্প্রতিক সময়ে পেলোসির তাইওয়ান সফর প্রসঙ্গ নিয়ে বেইজিং ও ওয়াশিংটনের মধ্যে তীব্র উত্তেজনা চলছে। কয়েক দফায় বেইজিংয়ের পক্ষ থেকে পেলোসির সফর নিয়ে সতর্ক করা হয়। পেলোসি তাইওয়ান সফর করলে যুক্তরাষ্ট্রকে এর ভয়াবহ পরিণতি ভোগ করতে হবে বলে এর আগেও হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

শুধু পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় নয়, পেলোসির সম্ভাব্য তাইওয়ান সফর নিয়ে হুঁশিয়ার করেছেন চীনের প্রেসিডেন্ট সি চিন পিং। সম্প্রতি মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে তাইওয়ান ইস্যুতে ‘আগুন নিয়ে না খেলার’ হুঁশিয়ারি দেন তিনি। এর আগে চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং জি ন্যান্সি পেলোসির সফর নিয়ে ওয়াশিংটনকে সতর্ক করেন।

তাইওয়ান নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে চীনের যেকোনো হুমকির চেয়ে এবারের হুমকি কঠোর। পেলোসির তাইওয়ান সফর নিয়ে বেইজিংয়ের অবস্থানের বিষয়টি সম্পর্কে জানেন এমন একাধিক ব্যক্তি বলেন, এবারে চীনের দেওয়া হুমকি ‘সামরিক উপায়ে’ পরিস্থিতির জবাব দেওয়ার ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে।

চীন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন