শস্য রপ্তানির জন্য কৃষ্ণসাগরের বন্দরগুলো খুলে দিতে গত শুক্রবার জাতিসংঘ-সমর্থিত একটি চুক্তি করে রাশিয়া ও ইউক্রেন। এ চুক্তির ২৪ ঘণ্টা পার না হতেই ওদেসা বন্দরে এ হামলা চালানো হয়।

এ হামলার পর গতকাল ইউক্রেনীয় প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেছেন, চুক্তিতে অটল থাকার ব্যাপারে মস্কোকে কেন বিশ্বাস করা যায় না—এ হামলাই তার প্রমাণ। ভবিষ্যতে এ ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র ভূপাতিত করার জন্য আকাশ প্রতিরক্ষাব্যবস্থা অর্জন করতে সম্ভাব্য সবকিছু করার অঙ্গীকার করেছেন তিনি।

শুক্রবারের চুক্তি অনুযায়ী, শস্যের চালান প্রস্তুত করার সময় বন্দরগুলোকে হামলার লক্ষ্যবস্তু না করার ব্যাপারে সম্মত হয়েছিল রাশিয়া।

ইউক্রেন হলো বড় শস্য রপ্তানিকারক দেশ। তবে রাশিয়ার অবরোধের কারণে ইউক্রেনের বন্দরগুলোয় প্রায় দুই কোটি টন শস্য আটকে আছে। এতে আফ্রিকাজুড়ে খাদ্যঘাটতি দেখা দেয় ও দাম বেড়ে যায়। গমের জন্য আফ্রিকা অঞ্চলের দেশগুলো সাধারণত রাশিয়া ও ইউক্রেনের ওপর নির্ভরশীল।

ইউরোপ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন