ইউক্রেনের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে জাপোরিঝঝিয়ায় বুধবার হাসপাতালের একটি প্রসূতি ওয়ার্ডে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় দুই দিনের শিশু নিহত হয়েছে। ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি এ হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। এ ছাড়া ইউক্রেনের বেসামরিক অবকাঠামো লক্ষ্য করেও ব্যাপক হামলা চালানো হচ্ছে। জেলেনস্কি বলেন, সন্ত্রাসী রাষ্ট্র বেসামরিক লোকজনের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে এবং বিভিন্ন অবকাঠামো ধ্বংস করে ফেলা হচ্ছে।

ইউক্রেনের মাইকোলাইভ অঞ্চলের সামরিক প্রশাসনের প্রধান ভিটালি কিম বলেন, ‘অসংখ্য ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হচ্ছে। দক্ষিণ থেকে পশ্চিমে সব দিকেই তারা ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ছে। তবে আমাদের আকাশ প্রতিরক্ষাব্যবস্থা কাজ করছে।’

ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে সম্প্রতি রুশ সেনাদের সঙ্গে ইউক্রেনের সেনাদের সংঘর্ষ বেড়ে গেছে। স্থানীয় কর্মকর্তারা বলছেন, দোনেৎস্কের বিভিন্ন শহর ও গ্রামে ব্যাপক গোলাবর্ষণ করছেন রুশ সেনারা। বুধবার একটি প্রতীকী পদক্ষেপে ইউরোপীয় পার্লামেন্ট রাশিয়াকে ‘সন্ত্রাসবাদের রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষক’ হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে। এদিকে রাশিয়ার পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, তারা ইউরোপকে গ্যাস সরবরাহ কমিয়ে দেবে। আসন্ন শীতের আগে তাই ইউরোপের দেশগুলো জ্বালানি মজুত বাড়াতে ছুটছে।

ক্রিমিয়ায় হামলা

ক্রিমিয়ায় একটি ড্রোন আঘাত করেছে বলে দাবি করেছে মস্কো। সেখানে রুশ বাহিনীকে সতর্ক অবস্থায় রাখা হয়েছে। ক্রেমলিনের কর্মকর্তারা এ কথা জানিয়েছেন। কিয়েভ আরেকটি আঞ্চলিক বিজয় দাবি করার সময় এ হামলার ঘটনা ঘটেছে।

যুক্তরাজ্যের কাছ থেকে হেলিকপ্টার পেল কিয়েভ

ইউক্রেনে প্রথমবারের মতো হেলিকপ্টার পাঠাচ্ছে যুক্তরাজ্য। দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী বেন ওয়ালেস এ ঘোষণা দিয়েছেন। রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধে কিয়েভকে সহায়তা বাড়ানোর অংশ হিসেবে হেলিকপ্টার দেওয়া হচ্ছে। যুক্তরাজ্যের তিনটি ‘সি কিং’ নামের হেলিকপ্টার পাবে কিয়েভ। ইতিমধ্যে একটি হেলিকপ্টার সেখানে পৌঁছে গেছে।

গত ফেব্রুয়ারি মাস থেকে ইউক্রেনে রাশিয়ার হামলা শুরুর পর থেকে এটাই প্রথম যুক্তরাজ্যের পক্ষ থেকে পাইলট নিয়ন্ত্রিত হেলিকপ্টার দেওয়া হলো। যুক্তরাজ্যের প্রতিরক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, যুক্তরাজ্যের সহায়তার অংশ হিসেবে আরও ১০ হাজার রাউন্ড গোলা পাঠানো হচ্ছে। ইউক্রেন সম্প্রতি রুশ সেনাদের কাছ থেকে যেসব এলাকা উদ্ধার করেছে, সেগুলো সুরক্ষায় এই গোলাবারুদ প্রয়োজন হবে।

বেন ওয়ালেস নরওয়ে সফর করছেন। সেখানে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘ইউক্রেনের প্রতি আমাদের সমর্থন অটুট রয়েছে। বাড়তি গোলাবারুদ ইউক্রেনকে উদ্ধারকৃত অঞ্চল সুরক্ষায় সুবিধা দেবে।’

সম্প্রতি যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক কিয়েভ সফর করেন। সেখানে তিনি ইউক্রেনকে আরও পাঁচ কোটি মার্কিন ডলার নতুন সহায়তার ঘোষণা দেন। ইউক্রেনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, সি কিং হেলিকপ্টার চালানোর জন্য দেশটির নৌবাহিনীর পক্ষ থেকে ইউক্রেনের সেনাবাহিনী ও প্রকৌশলীদের ছয় সপ্তাহের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। এর আগে যুক্তরাজ্যের পক্ষ থেকে কিয়েভকে ভূমি থেকে আকাশে উৎক্ষেপণযোগ্য ১ হাজার ক্ষেপণাস্ত্র ও ১২৫ বিমানবিধ্বংসী বন্দুক সরবরাহের প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়। যুক্তরাজ্যের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে আরও বলা হয়, ইরানের তৈরি ড্রোনের সরবরাহ ফুরিয়ে আসছে রাশিয়ার। গত সেপ্টেম্বর মাস থেকে ইউক্রেনে ইরানের তৈরি ড্রোন ব্যবহার করে হামলা চালিয়ে আসছে মস্কো।