লন্ডনের মেট্রোপলিটন পুলিশ বলছে, মুহাম্মদ খানের বিরুদ্ধে পাবলিক অর্ডার অ্যাক্টের আওতায় অভিযোগ গঠন করা হয়েছে। আগামীকাল সোমবার মুহাম্মদ খানকে ওয়েস্টমিনস্টার ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হবে।

সর্বসাধারণের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য ওয়েস্টমিনস্টার হলে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের মরদেহবাহী কফিন রাখা আছে। সাধারণ মানুষ দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে রানির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করছেন। গত শুক্রবার যুক্তরাজ্যের সময় রাত ১০টার দিকে মুহাম্মদ খান লাইন ভেঙে রানির কফিনের কাছে চলে যান।

লন্ডনের মেট্রোপলিটন পুলিশের এক বিবৃতিতে বলা হয়, টাওয়ার হ্যামলেটসের বার্লিকর্ন ওয়ের বাসিন্দা মুহাম্মদ খানের বিরুদ্ধে গতকাল শনিবার অভিযোগ গঠন করা হয়েছে। পাবলিক অর্ডার অ্যাক্ট ৪এ-এর আওতায় তাঁর বিরুদ্ধে আতঙ্ক তৈরি, হয়রানি ও উৎপীড়নমূলক আচরণের অভিযোগ করা হয়েছে। আগামীকাল তাঁকে ওয়েস্টমিনস্টার ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হবে।

এর আগে গত বুধবার শ্রদ্ধা নিবেদনের লাইনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষার সময় অন্য শোকাহত মানুষকে পেছন থেকে ধাক্কা দিয়ে হয়রানির অভিযোগে আরও এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়। এডিও এডেশিনে নামের ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ করা হয়েছে। আগামী ১৪ অক্টোবর এডেশিনেকে সাউথওয়ার্ক ক্রাউন আদালতে হাজির করা হবে।

আগামীকাল রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের রাষ্ট্রীয় অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া অনুষ্ঠিত হবে।

ইউরোপ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন