বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ইমরান খান আরও বলেন, বিষয়টি নিয়ে পাকিস্তান তার প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে আলোচনা করছে। আলোচনার পর এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

আফগান সরকারকে সহায়তা প্রদানের জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আবার আহ্বান জানিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, দেশটি অনেকাংশে বিদেশি সাহায্যের ওপর নির্ভরশীল।

ইমরান খান বলেন, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় যদি আফগান জনগণকে সাহায্য করতে এগিয়ে না আসে, তাহলে দেশটিতে মানবিক সংকট দেখা দিতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্রের সন্ত্রাসবিরোধী যুদ্ধের সময় তালেবানকে প্রকাশ্যে ও গোপনে সহায়তা করার অভিযোগ রয়েছে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে।

আগস্টে আফগানিস্তানে মার্কিন সামরিক মিশনের সমাপ্তি ও তালেবানের ক্ষমতা দখলের পর পাকিস্তানে রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে উচ্ছ্বাস দেখা যায়।

গত ১৫ আগস্ট কাবুলের পতনের মধ্য দিয়ে আফগানিস্তানের ক্ষমতা তালেবানের হাতে যায়। এরই প্রেক্ষাপটে ইমরান খান প্রকাশ্যে বলেন, আফগানরা দাসত্বের শৃঙ্খল ভেঙেছে।

আফগানিস্তানের ক্ষমতা তালেবানের দখলে যাওয়ার পর গোষ্ঠীটিকে সরকার গঠনে সহায়তা করতে এগিয়ে আসে পাকিস্তান। এ লক্ষ্যে অঘোষিত সফরে কাবুলে যান পাকিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা ইন্টার-সার্ভিসেস ইন্টেলিজেন্সের (আইএসআই) মহাপরিচালক লেফটেন্যান্ট জেনারেল ফাইজ হামিদ।

পাকিস্তান থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন