বর্তমান সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া চলতি মাসের শেষের দিকে অবসরে যাচ্ছেন। আরেক মেয়াদে দায়িত্ব পালনের সম্ভাবনা তিনি নাকচ করে দিয়েছেন। সামরিক বাহিনীর পক্ষ থেকেও একই কথা জানানো হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্তে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করবেন না প্রেসিডেন্ট

গতকাল শুক্রবার প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভির সঙ্গে দেখা করেছেন অর্থমন্ত্রী সিনেটর ইসহাক দার। এ সময় তিনি নতুন সেনাপ্রধান নিয়োগ এবং দেশের সাংবিধানিক বিষয়ে সৃষ্ট অচলাবস্থা অবসানে তাঁর কাছে বিশেষ বার্তা পৌঁছে দেন।

প্রেসিডেন্ট বলেছেন, নতুন সেনাপ্রধান নিয়োগে প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফের সুপারিশ অনুসরণ করবেন তিনি। সূত্রের বরাত দিয়ে জিও নিউজ বলছে, নিজের সহযোগীর সঙ্গে আলাপকালে প্রেসিডেন্ট বলেছেন, সেনাপ্রধান নিয়োগের প্রক্রিয়ায় তিনি কোনো ধরনের প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি করবেন না।

প্রেসিডেন্ট আলভি জোর দিয়ে বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর সুপারিশ আটকে দেওয়ার মতো কোনো আইনি কর্তৃত্ব আমার নেই। আমি কখনোই রাষ্ট্রীয় বিষয়ে হস্তক্ষেপ করিনি।’

এদিকে, ইমরান খান আবারও ‘মেধার ভিত্তিতে’ সেনাপ্রধান নিয়োগ দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, পরবর্তী সেনাপ্রধান নিয়োগের বিষয়ে তাঁর দল জড়াবে না। এ বিষয়ে তারা সরকারের ওপর নজর রাখবেন।