এ ঘোষণার কয়েক মিনিট পর সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে প্রতিরক্ষামন্ত্রী খাজা আসিফ বলেন, নিয়োগের সুপারিশ প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভির দপ্তরে পাঠানো হয়েছে।

তিনি বলেন, আইন ও সংবিধান মেনে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। জনগণকে ‘রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গি’ থেকে বিষয়টিকে না দেখারও আহ্বান জানিয়েছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী।

প্রেসিডেন্ট এই নিয়োগগুলো ‘বিতর্কিত’ করবেন না এবং প্রধানমন্ত্রীর সুপারিশ অনুমোদন করবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন খাজা আসিফ।

তিনি আরও বলেন, প্রেসিডেন্টের উচিত প্রধানমন্ত্রীর সুপারিশ অনুমোদন করা, যাতে কোনো ‘বিতর্ক তৈরি না হয়’। এটি আমাদের দেশ এবং অর্থনীতিকে সঠিক পথে ফেরাবে। বর্তমানে সবকিছু স্থবির হয়ে আছে।

বর্তমান সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া চলতি মাসের শেষের দিকে অবসরে যাচ্ছেন। আরও এক মেয়াদ দায়িত্ব পালনের সুযোগ থাকলেও অবসর নেওয়ার ঘোষণা দেন তিনি। তাঁর ঘোষণার পর সব মহলের নজর ছিল নতুন সেনাপ্রধান নিয়োগের দিকে।