মাস্ক বলেন, তিনটি বিষয় তাঁকে ওজন কমাতে সহায়তা করেছে। এই তিন বিষয় হলো—উপবাস, মুখরোচক খাবার কম খাওয়া ও ডায়াবেটিসের ওষুধ খাওয়া।

টুইটারে একজন নারী ব্যবহারকারী ইলন মাস্কের দুটি ছবি পোস্ট করে ওজন কমানোর রূপান্তর দেখিয়ে টুইটে লিখেছেন, ‘আপনি এক টন ওজন কমিয়ে ফেলেছেন, ইলন!এটা খুবই দুর্দান্ত কাজ, চালিয়ে যান।’ এর জবাবে মাস্ক লিখেছেন, ‘১৩ কেজির নিচে’।

ইলন মাস্কের ১৩ ওজন কমানোর ছবি দেখে টুইটার ব্যবহারকারী অনেকেই বিস্মিত হয়েছেন। একজন কী উপায়ে ওজন কমিয়েছেন, তা মাস্কের কাছে জানতে চেয়েছেন। এর জবাবে মাস্ক বলেছেন, উপবাস, মুখরোচক খাবার কম খাওয়া ও ডায়াবেটিসের ওষুধ খাওয়া—এই তিন বিষয় একসঙ্গে করায় তা কাজ করেছে। তিনি সুস্থ্ও আছেন।

এরপরেই ব্যবহারকারীরা মাস্ককে অভিনন্দন জানাতে থাকেন। একজন লিখেছেন, ‘এটা কঠিন কাজ। কাজটি আপনি চালিয়ে যান, নির্দিষ্ট গন্তব্যে পৌঁছে যাবেন।’

গত কয়েক মাস আগে ইলন মাস্ক বলেছিলেন, তিনি জীবনধারায় পরিবর্তন আনতে যাচ্ছেন। গত ২৮ আগস্ট এক টুইটে তিনি বলেছিলেন, ‘একজন ভালো বন্ধুর পরামর্শে নিয়মিত উপবাস করছি এবং এতে সুস্থ বোধ করছি। জিরো ফাস্টিং অ্যাপটি বেশ ভালো।’

মাস্ক সে সময় বলেছিলেন, তিনি তাঁর সর্বোচ্চ ওজন থেকে প্রায় ৯ কেজি ওজম কমিয়েছেন। তবে পরে এক টুইটের জবাবে তিনি বলেছিলেন, কিছু ওজন বেড়েছেও।

গত আগস্টেই অস্ট্রেলিয়ার রেডিও স্টেশন কেআইআইএস এফএফে কাইলি অ্যান্ড জ্যাকি ও’র শোয়ে মাস্কের বাবা এরল মাস্ক বলেছিলেন, তাঁর ছেলে ‘মাত্রাতিরিক্ত খাবার খাচ্ছে’। ওজন কমানোর জন্য মাস্ককে ডায়েটের ওষুধ খাওয়া উচিত বলেও পরামর্শ দিয়েছিলেন তিনি।