টার্ক চিঠিতে লেখেন, ‘টুইটার হলো একটি বৈশ্বিক বিপ্লবের অংশ, যা আমরা কীভাবে যোগাযোগ করি, তা পরিবর্তন করেছে। কিন্তু আমি উদ্বেগ ও শঙ্কার সঙ্গে আমাদের ডিজিটাল অঙ্গনে টুইটারের ভূমিকা নিয়ে লিখছি। সব প্রতিষ্ঠানের মতো টুইটারকে তাদের প্ল্যাটফর্মের সঙ্গে যুক্ত ক্ষতির বিষয়টি বোঝা এবং সে বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করা উচিত।’

ইলন মাস্ককে উদ্দেশ্য করে টার্ক লেখেন, ‘আপনার নেতৃত্বে টুইটারের ব্যবস্থাপনার কেন্দ্রে মানবাধিকার বিষয়টি নিশ্চিত করার আহ্বান জানাচ্ছি।’

এদিকে টুইটারের পক্ষ থেকে আয় বাড়ানোর জন্য মাসে আট ডলারের বিনিময়ে ‘নীল টিক’ বা ভেরিফায়েড সেবা চালু করা হয়েছে। ইলন মাস্কের পক্ষ থেকে ঘোষণা দিয়ে বলা হয়েছে, টুইটারকে উন্নত করতে আরও সেবা আনা হবে। তিনি টুইটারের সার্চ সেবা আরও উন্নত করার কথা বলেছেন। এ ছাড়া খুদে ব্লগ লেখার সাইট হিসেবে পরিচিত টুইটারে আরও বেশি শব্দসংখ্যা লেখার সুবিধা আনবেন তিনি। এ ছাড়া সব ধরনের কনটেন্ট নির্মাতাদের জন্যও অর্থ আয়ের পথ করে দেবেন তিনি। মাস্ক বলেছেন, ইউটিউব কনটেন্ট নির্মাতাদের বিজ্ঞাপনের ৫৫ শতাংশ দিয়ে থাকে। তাঁরা এর চেয়ে বেশি অর্থ দেবেন।