টুইটারের সাবেক কর্মকর্তা ব্রুস ডেইসলি বলেন,‘ ইলন মাস্ক ভেবেছেন যে তিনি একাই সব সমস্যার সমাধান করবেন। তিনি সবকিছু দ্রুত সেরে ফেলতে চাইছেন। কিন্তু এটা কঠিন বিষয়। তিনি জানেন না তিনি কী করছেন।’

ইলন মাস্ক সম্প্রতি ঘোষণা দিয়েছেন, টুইটারের ভেরিফায়েড গ্রাহকেদর প্রতি মাসে আট ডলার করে দিতে হবে। ডেইসলি এ সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেন। মাস্ক এটা ‘পকেট মানি’ বানানোর জন্য করেছেন বলেও সমালোচনা করেন ডেইসলি।

গত শুক্রবার চাকরি হারানো টুইটারের এক কর্মীর সমর্থনে টুইট করেন ডেইসলি।

গত ২৭ অক্টোবর ৪ হাজার ৪০০ কোটি ডলারে টুইটার কিনে নেন ইলন মাস্ক। এরপর কর্মী ছাঁটাইয়ের কাজ শুরু করেন। তাঁর এ উদ্যোগে তীব্র সমালোচনা শুরু হয়। তবে মাস্ক বলেন, তাঁর এ কাজ করা ছাড়া উপায় ছিল না। কারণ, প্রতিষ্ঠানটির প্রতিদিন ৪০ লাখ ডলার ক্ষতি হয়।