default-image

অ্যান্ডি বেশিয়ার বলেন, সবচেয়ে বন্যাকবলিত এলাকাগুলো হেলিকপ্টারে পরিদর্শনের সময় বন্যার বিস্তৃতি দেখে হতবাক হয়ে যান ইউএস ফেডারেল ইমার্জেন্সি ম্যানেজমেন্ট এজেন্সির প্রধান ডিন ক্রিসওয়েল।

অ্যান্ডি বেশিয়ার বলেন, অঙ্গরাজ্যের রাজধানী ফ্রাঙ্কফোর্টের ১৬০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বের শহর জ্যাকসনের অধিকাংশই পানির নিচে। এই শহরে ২ হাজার ২০০ মানুষের বসবাস।

গভর্নর বেশিয়ার বলেন, ‘শত শত ঘরবাড়ি, খেলার মাঠ, পার্ক ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান এত বেশি পানির নিচে, যা আমাদের কেউ কেউ এই অঞ্চলে এবারই প্রথম দেখেছে।’ তিনি বলেন, এককথায় ধ্বংসাত্মক।

অ্যান্ডি বেশিয়ার জানান, গতকাল বন্যায় মৃত্যু হয়েছে ১৬ জনের, তাদের মধ্যে কমপক্ষে ৬টি শিশু রয়েছে। এই সংখ্যা নিশ্চিতভাবে বাড়বে, যখন বন্যার পানি নেমে যাবে এবং উদ্ধারকারী দলগুলো আরও মরদেহ উদ্ধার করবে। তিনি বলেন, অনেক মানুষ হিসাবের বাইরে রয়ে গেছে।

পরিবেশবিজ্ঞানের অধ্যাপক ও কেনটাকি জিওলজিক্যাল সার্ভের পরিচালক উইলিয়াম হ্যানবার্গ বলেন, এই অঞ্চলে ২৪ ঘণ্টায় ৫ থেকে ১০ ইঞ্চি (১৩-২৫ সেন্টিমিটার) বৃষ্টিতে এই বন্যার সৃষ্টি হয়। এই অঞ্চলের রেকর্ড বইয়ে এ ধরনের প্লাবন নজিরবিহীন মনে করা হচ্ছে।

ভয়াবহ এই বন্যা সাত মাসের মধ্যে কেনটাকিতে দ্বিতীয় কোনো বড় ধরনের জাতীয় দুর্যোগ। গত ডিসেম্বরে বেশ কিছু টর্নেডোর আঘাতে এই অঙ্গরাজ্যের পশ্চিম অংশে প্রায় ৮০ জনের মৃত্যু হয়।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন