গত শনিবার ত্রিশাল উপজেলার কোর্ট ভবন এলাকায় ট্রাকচাপায় নিহত হন রায়মনি গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম (৪২), তাঁর অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী রত্না বেগম (৩২) ও তাঁদের ছয় বছরের মেয়ে সানজিদা। এ সময় রত্না বেগম সড়কের মধ্যে নবজাতকের জন্ম দেন। এ ঘটনায় বাবা-মা ও বোন মারা গেলেও সেই নবজাতক অক্ষত থাকে।

নবজাতকের ছবিসহ সংবাদমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হওয়ায় অনেকেই নবজাতককে দত্তক নিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। জন্মের পর থেকেই নবজাতককে নিজের হাসপাতালে রেখে চিকিৎসা করাচ্ছিলেন ময়মনসিংহের লাবীব হাসপাতালে মালিক মো. শাহ জাহান। তবে গত সোমবার রাতে নবজাতকের রক্তে বিলিরুবিনের মাত্রা বেড়ে যাওয়ায় তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নবজাতকের চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঁচ সদস্যের একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন