ভাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নবনির্মিত একটি ভবনের উদ্বোধন উপলক্ষে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স প্রাঙ্গণে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন যুবলীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও ফরিদপুর-৪ (ভাঙ্গা, সদরপুর ও চরভদ্রাসন) আসনের সংসদ সদস্য মজিবুর রহমান।

আগামী জাতীয় নির্বাচনেও নিক্সন চৌধুরী সংসদ সদস্য নির্বাচিত হবেন বলে উল্লেখ করেন শাহাদৎ হোসেন। তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্দেশে বলেন, ‘আপনার সিট বাদে বাকি ২৯৯টি সিটের মধ্যে এ আসন থেকে নিক্সনকে সর্বোচ্চ ভোট দিয়ে নির্বাচিত করে আপনাকে উপহার দেব।’

ফরিদপুর জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ার‌ম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছিলেন যুবলীগের সভাপতিমণ্ডলীর সাবেক সদস্য মোহাম্মদ ফারুক হোসেন। তিনি পেয়েছিলেন ৫৪০ ভোট। স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ৬২৫ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন শাহাদৎ। তিনি কেন্দ্রীয় যুবলীগের অর্থবিষয়ক সম্পাদক ছিলেন। তবে নির্বাচনে প্রতীক বরাদ্দ হওয়ার আগে ২৪ সেপ্টেম্বর তিনি দলীয় পদে ইস্তফা দেন। নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকেই শাহাদৎকে নিজের প্রার্থী হিসেবে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে পরিচয় করিয়ে দেন নিক্সন চৌধুরী। তবে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ঘোষণার পর তাঁকে শাহাদতের পক্ষে প্রকাশ্যে কোনো প্রচারণায় দেখা যায়নি।

নিজের বক্তব্য শেষ করে অন্য একটি সভায় যোগদানের জন্য অনুষ্ঠানস্থল ত্যাগ করেন নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান শাহাদৎ হোসেন। পরে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন নিক্সন চৌধুরী। জেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাঙ্গার সন্তানকে ভোট দেওয়ায় তিনি ৯টি উপজেলা ও ৬টি পৌরসভার জনপ্রতিনিধিদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান। তিনি বলেন, ‘আপনারা ভাঙ্গা ছেলেকে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বানিয়েছেন। ফলে এ অঞ্চলে আরও উন্নয়নের পথ সুগম হয়েছে।’

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের উদ্দেশে নিক্সন চৌধুরী বলেন, ‘আপনারা নাকি আগামী ১০ ডিসেম্বর সরকার উৎখাত করবেন? আপনাদের বলি, আপনাদের ঠেকাতে আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগের প্রয়োজন হবে না, যুবলীগের শেখ ফজলে শামস পরশের নেতৃত্বে শুধু যুবলীগই যথেষ্ট।’ আগামী ১১ নভেম্বর ঢাকায় যুবলীগের সমাবেশে ১০ লাখ লোকের সমাগম ঘটবে বলে উল্লেখ করেন নিক্সন।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মোহসীন উদ্দিন ফকির। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন ফরিদপুরের সিভিল সার্জন ছিদ্দীকুর রহমান, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী (স্বাস্থ্য) গোলামি মাহাবুব, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ভাঙ্গা সার্কেল) হেলালউদ্দিন ভূইয়া, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এস এম হাবিবুর রহমান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আজিমউদ্দিন প্রমুখ।