আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে যশোর জেলা বিএনপির লালদীঘিপাড় কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তারা এই দাবি করেন। সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপির খুলনা বিভাগীয় ভারপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক অনিন্দ্য ইসলাম বলেন, বিএনপির অন্তঃকোন্দলে আজ পর্যন্ত কোনো মায়ের কোল খালি হয়নি। এক ভাইয়ের রক্তে আজ পর্যন্ত অন্য ভাইয়ের হাত রঞ্জিত হয়নি। খুনকে রাজনৈতিক রং দেওয়ার অপচেষ্টা চালাচ্ছে আওয়ামী লীগ। কিন্তু আওয়ামী লীগের এই অপচেষ্টা সফল হবে না।

রাজপথ না ছাড়ার ঘোষণা দিয়ে অনিন্দ্য ইসলাম বলেন, যুবদল নেতা বদিউজ্জামানের প্রকৃত হত্যাকারীদের বিচার না হওয়া পর্যন্ত বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল রাজপথ ছাড়বে না।

default-image

বক্তারা বলেন, প্রকাশ্য দিনের আলোয় একটি রাজনৈতিক দলের শীর্ষ নেতার হত্যার মধ্য দিয়ে প্রমাণিত হয়েছে, দেশে আওয়ামী লীগ ছাড়া অন্য রাজনৈতিক দলের নেতা-কর্মীরা ন্যূনতম নিরাপদ নন। তাঁদের স্বাভাবিকভাবে বেঁচে থাকা কিংবা মৃত্যু কোনোটির নিশ্চয়তা নেই।

অবিলম্বে এই হত্যাকাণ্ডে জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করার দাবি জানান বক্তারা। অন্যথায় কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন তাঁরা।

জেলা যুবদলের সহসভাপতি আমিনুর রহমানের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য দেন জেলা বিএনপির সদস্যসচিব সৈয়দ সাবেরুল হক, যুগ্ম আহ্বায়ক দেলোয়ার হোসেন, জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক আনসারুল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক কবির হোসেন, যুগ্ম সম্পাদক নাজমুল হোসেন প্রমুখ।

বিক্ষোভ সমাবেশের আগের জেলা যুবদলের বিভিন্ন শাখা থেকে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র মিছিল নিয়ে নেতা-কর্মীরা সমাবেশস্থলে যোগ দেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন