গত শনিবার বিকেলে ময়মনসিংহের ত্রিশালে কোর্ট ভবন এলাকায় সড়ক পার হতে গিয়ে মারা যান রায়মনি গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম (৪২), তাঁর স্ত্রী রত্না বেগম (৩২) ও ৬ বছরের কন্যাশিশু সানজিদা। রত্না বেগম অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। দুর্ঘটনার পরপরই সড়কে পড়ে থাকে এক নবজাতক। প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেন, রত্নার পেট চিরে জন্ম হয় এই শিশুর। জন্মের পর থেকে শিশুটি ময়মনসিংহ নগরের বেসরকারি লাবীব হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

এ দুর্ঘটনায় গতকাল রোববার রাতে নিহত জাহাঙ্গীর আলমের বাবা মোস্তাফিজুর রহমান বাদী হয়ে মামলা করেন।

ট্রাকচালকের গ্রেপ্তারের বিষয়ে কাল মঙ্গলবার রাজধানীর কারওয়ান বাজারে র‍্যাবের মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত জানানো হবে বলে ওই খুদে বার্তায় উল্লেখ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন

নবজাতকটিকে দুধ দিয়েছেন চার প্রসূতি, দেশবাসীর কাছে নাম চান দাদা

ট্রাকচাপায় বাবা-মা-বোনের প্রাণহানি, সড়কে জন্ম নেওয়া নবজাতক ভালো আছে

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন