বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বৃহৎ এই দুই নিয়োগ পরীক্ষা একই সময়ে পড়ায় বিপাকে পড়েছেন চাকরিপ্রার্থীরা। রুহুল আমিন নামের এক চাকরিপ্রার্থী প্রথম আলোকে বলেন, ‘আমার মতো লাখো বেকারের স্বপ্নের জায়গা বিসিএস ও এসআই। দীর্ঘদিন পর এসআই নেওয়ার বিজ্ঞপ্তি হলো। এটার জন্য আলাদাভাবে প্রস্তুতি নিচ্ছিলাম। কিন্তু বিসিএসের সঙ্গে এ পরীক্ষা পড়ায় হতাশ হয়েছি। বিসিএসের জন্য পড়ব, নাকি এসআই পরীক্ষার জন্য পড়ব, সিদ্ধান্ত নিতে পারছি না। আমাদের দিকটি বিবেচনা করে কর্তৃপক্ষের উচিত সূচি পরিবর্তন করা।’

default-image

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আরেক চাকরিপ্রার্থী প্রথম আলোকে বলেন, ‘এসআইয়ের পরীক্ষার তারিখ ঘোষণার পর বিসিএসের লিখিত পরীক্ষার সূচি প্রকাশ করা হয়েছে। এক সপ্তাহ পিছিয়ে বিসিএসের লিখিত পরীক্ষার সূচি দিলে আমাদের সমস্যায় পড়তে হতো না। এখন আমরা যারা বিসিএসের লিখিত পরীক্ষা দেব, তারা কি এসআইয়ের পরীক্ষা দিতে পারব না?’

জানতে চাইলে পিএসসি চেয়ারম্যান সোহরাব হোসাইন প্রথম আলোকে বলেন, বিসিএস একটি গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষা, প্রার্থীরা অনেক দিন ধরে এর জন্য অপেক্ষা করে আছেন। এসআই পদের পরীক্ষা পিছিয়ে দিলে প্রার্থীদের উপকার হবে। তিনি আশা প্রকাশ করেন, পুলিশের পরীক্ষা পেছাবে।

default-image

পুলিশ সদর দপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক এআইজি (মাল্টিমিডিয়া অ্যান্ড পাবলিসিটি) মো. কামরুজ্জামান প্রথম আলোকে বলেন, ‘পরীক্ষা পেছানোর বিষয়ে উচ্চপর্যায়ে আলোচনা চলছে। শিগগিরই সিদ্ধান্ত হবে বলে আশা করি।’

এসআই পদে জনবল কতজন নেওয়া হবে, তা বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ নেই। অনলাইনে আবেদন চলছে। চাকরিপ্রত্যাশীরা আবেদন করতে পারবেন আগামী ৪ নভেম্বর পর্যন্ত।

৪১তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন ২১ হাজার ৫৬ জন। গত ১ আগস্ট প্রিলিমিনারির ফলাফল প্রকাশ করা হয়। এদিকে এবার নতুন নিয়মে এসআই নিয়োগ দেওয়া হবে। নতুন নিয়ম নিয়ে পুলিশের ওয়েবসাইটে বিস্তারিত বিজ্ঞপ্তিও প্রকাশ করা হয়েছে।

২০১৯ সালের ২৭ নভেম্বর ৪১তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে পিএসসি। এতে বিভিন্ন পদে ২ হাজার ১৩৫ জন কর্মকর্তা নিয়োগ দেওয়া হবে। বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী সবচেয়ে বেশি নেওয়া হবে শিক্ষা ক্যাডারে। এই ক্যাডারে ৯১৫ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে। এর মধ্যে বিসিএস শিক্ষায় ৯০৫ জন এবং কারিগরি শিক্ষা বিভাগে ১০ জন প্রভাষক নেওয়া হবে। শিক্ষার পর বেশি নিয়োগ হবে প্রশাসন ক্যাডারে। প্রশাসনে ৩২৩ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে।

পুলিশে ১০০, স্বাস্থ্যে সহকারী সার্জন ১১০ ও সহকারী ডেন্টাল সার্জন ৩০ জন নেওয়া হবে। ৪১তম বিসিএসে পররাষ্ট্রে ২৫, আনসারে ২৩, অর্থ মন্ত্রণালয়ে সহকারী মহাহিসাবরক্ষক (নিরীক্ষা ও হিসাব) ২৫, সহকারী কর কমিশনার (কর) ৬০, সহকারী কমিশনার (শুল্ক ও আবগারি) ২৩ ও সহকারী নিবন্ধক হিসেবে ৮ জন নেওয়া হবে। পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগে পরিসংখ্যান কর্মকর্তা ১২, রেলপথ মন্ত্রণালয়ে সহকারী যন্ত্র প্রকৌশলী ৪, সহকারী ট্রাফিক সুপারিনটেনডেন্ট ১, সহকারী সরঞ্জাম নিয়ন্ত্রক ১, সহকারী প্রকৌশলী (সিভিল) ২০, সহকারী প্রকৌশলী (যান্ত্রিক) হিসেবে ৩ জনকে নেওয়া হবে।

তথ্য মন্ত্রণালয়ে সহকারী পরিচালক বা তথ্য কর্মকর্তা বা গবেষণা কর্মকর্তা ২২, সহকারী পরিচালক (অনুষ্ঠান) ১১, সহকারী বার্তা নিয়ন্ত্রক ৫, সহকারী বেতার প্রকৌশলী ৯, স্থানীয় সরকার বিভাগে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলে সহকারী প্রকৌশলী ৩৬, সহকারী বন সংরক্ষক ২০ জন। ৪১তম বিসিএসে সহকারী পোস্টমাস্টার জেনারেল পদে ২, মৎস্যে ১৫, পশুসম্পদে ৭৬, কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা ১৮৩ ও বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ৬, বাণিজ্যে সহকারী নিয়ন্ত্রক ৪ জন। পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ৪, খাদ্যে সহকারী খাদ্য নিয়ন্ত্রক ৬ ও সহকারী রক্ষণ প্রকৌশলী ২, গণপূর্তে সহকারী প্রকৌশলী (সিভিল) ৩৬ ও সহকারী প্রকৌশলী (ই/এম) হিসেবে ১৫ জন কর্মকর্তাকে এই বিসিএসে নিয়োগ দেওয়া হবে।

নিয়োগ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন