আল্লু অর্জুন
ভারতের অন্যতম ধনী অভিনেতা দক্ষিণ ভারতের এই তারকা। নিজের গাড়ির ব্যাপারে তিনি খুবই খুঁতখুঁতে। স্বভাবতই ভ্যানিটি ভ্যানের ক্ষেত্রেও তিনি যথেষ্ট খুঁতখুঁতে হবেন, এটিই স্বাভাবিক। আল্লু অর্জুনের ভ্যানিটি ভ্যানের নাম ফ্যালকন। ভ্যানিটি ভ্যানের ভেতরে রুপালি ও কালো রঙের ব্যবহার এটিকে ভিন্ন মাত্রা দিয়েছে। জানা গেছে, আল্লু অর্জুনের ফ্যালকনের দাম সাত কোটি রুপির বেশি।

মহেশ বাবু
তেলেগু অভিনেতাদের অন্যতম ফ্যাশনসচেতন অভিনেতা তিনি। জুতা, ঘড়ি থেকে গাড়ি—সবকিছুতেই জাঁকজমক পছন্দ করেন তিনি। জানা গেছে, তাঁর ভ্যানিটি ভ্যানের দাম ৬ কোটি ২০ লাখ রুপি, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৭ কোটি ৮০ লাখ টাকা।

প্রভাস
প্রতি সিনেমায় প্রায় ১০০ কোটি রুপি পারিশ্রমিক নেন প্রভাস। পারিশ্রমিকের বিচারে ভারতের শীর্ষ পারিশ্রমিক পাওয়া তারকাদের একজন তিনি। কিছুদিন আগেই নতুন ভ্যানিটি ভ্যান কিনেছেন তিনি। ‘আদিপুরুষ’-এর শুটিংয়ের সময় তাঁকে নতুন ভ্যানে দেখা গেছে। কিছুদিন আগেই পরিচালক ওম রাউত প্রভাসের ভ্যানের আংশিক ছবি শেয়ার করেন। যেখানে দেখা গেছে, প্রভাসের ভ্যানিটি ভ্যানে ছাদ খুলে রাখার সুবিধা আছে।

সামান্থা রুথ প্রভু
মেকআপ, বিশ্রাম থেকে খাওয়া—সামান্থার জীবনের গুরুত্বপূর্ণ সময় কাটে ভ্যানিটি ভ্যানে। সময়টা যাতে ভালোভাবে কাটাতে পারেন, সে জন্য ভ্যানের অন্দরমহল আরামদায়ক করে তোলার চেষ্টার কমতি রাখেননি তিনি।

পবন কল্যাণ
‘বিমলা নায়ক’–অভিনেতা পবন কল্যাণ দক্ষিণ ভারতের অন্যতম সফল অভিনেতা। পবন কল্যাণ সব সময়ই পরিচিত তাঁর সাধারণ জীবন যাপনের জন্য। তবে ভ্যানিটি ভ্যানে যাতে স্বস্তিতে সময় কাটাতে পারেন, সে জন্য প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থাই রেখেছেন।